kalerkantho


ট্রাম্পের বিরুদ্ধে স্টর্মির মানহানি মামলা খারিজ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৬ অক্টোবর, ২০১৮ ১৪:৩২



ট্রাম্পের বিরুদ্ধে স্টর্মির মানহানি মামলা খারিজ

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিরুদ্ধে  পর্ন তারকা স্টর্মি ডেনিয়েলসের করা একটি মানহানির মামলা খারিজ করে দিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের একটি আদালত। এনবিসি নিউজ এক প্রতিবেদনা জানায়,  গতকাল সোমবার লস অ্যাঞ্জেলসের ডিস্ট্রিক্ট আদালতের বিচারক জেমস ওটেরো মামলাটি খারিজ করে দেন। তবে রায়ের বিরুদ্ধে স্টিফানি আপিল করবেন বলে জানিয়েছেন তার আইনজীবী মাইকেল অ্যাভেনাত্তি।

স্টর্মি ডেনিয়েলস মূলত তার চলচ্চিত্র দুনিয়ার নাম। তার আসল নাম স্টিফানি ক্লিফোর্ড। ট্রাম্পের সঙ্গে তার যৌন সম্পর্ক এবং মুখ বন্ধের জন্যে অর্থ প্রদানের বিষয়ে নিয়ে ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনা  হয়েছে। স্টর্মির দাবি, ২০০৬ সালে ট্রাম্পের সঙ্গে যৌন সম্পর্ক গড়ে ওঠে তার। পরে মুখ বন্ধের জন্যে অর্থও প্রদান করা হয় তাকে। যদিও বরাবরই যাবতীয় অভিযোগ অস্বীকার করে আসছেন ট্রাম্প।

মামলার পটভূমি রচিত হয়ে এক অজানা ব্যক্তিকে নিয়ে। স্টিফানির বলেন, ট্রাম্পের সঙ্গে তার সম্পর্কের বিষয় নিয়ে  ২০১১ সালে একটি ম্যাগাজিনকে সাক্ষাৎকার দেন তিনি। এ কারণে তাকে হুমকি দিয়েছিলেন অজ্ঞাত ব্যক্তি। এ বিষয়ে ‘চুপ থাকতে’ বলেছিলেন তিনি। ট্রাম্পকে নিয়ে এসব তথ্য ছড়াতে থাকলে কপালে খারাবি আছে বলে হুমকিও দিয়েছিলেন। সেই হুমকি প্রদানকারী ব্যক্তিকে খুঁজে বের করতে স্টর্মির সঙ্গে কাজ শুরু করেন এক ফরেনসিক শিল্পী। এতেও ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেন ট্রাম্প। তিনি টুইটারে জানান, অস্তিত্বই নেই এমন একজনের স্কেচ এত বছর পর আঁকা। এটা পুরোপুরি প্রতারণা। 

ট্রাম্পের এমন মন্তব্য স্টর্মির জন্যে মানহানিকর বলেই মনে করেছেন অভিনেত্রী। এ কারণে ট্রাম্পের  বিরুদ্ধে মামলা ঠুকে দেন তিনি। এ মামলার রায়ে বিচারক ওটেরো বলেন, মার্কিন রাজনীতি এবং সাধারণের পরিমণ্ডলে এ ধরনের পাল্টা কথা ছুঁড়ে দেওয়া প্রচলিত। প্রথম সংশোধনী এ ধরনের পাল্টা মন্তব্যকে সুরক্ষা দিয়ে আসছে। 

মানহানির মামলা খারিজ হলেও ট্রাম্প ও তার সাবেক আইনজীবী মাইকেল কোহেনের বিরুদ্ধে স্টিফানির করা অন্য মামলায় এর কোনো প্রভাব পড়বে না বলেও টুইটারে জানিয়েছেন তিনি।



মন্তব্য