kalerkantho


রাষ্ট্রভাষা উর্দুতে দুর্বলতায় কটাক্ষের শিকার

শপথে ভুল করে ক্ষমা চাইলেন ইমরান খান

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৯ আগস্ট, ২০১৮ ০৮:৫৯



শপথে ভুল করে ক্ষমা চাইলেন ইমরান খান

ছবি অনলাইন

পাকিস্তানের রাষ্ট্রভাষা উর্দুতে দুর্বলতার কারণে শপথ নেওয়ার সময় কটাক্ষের শিকার হলেন পাকিস্তানের ২২তম প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। শনিবার সকালে বিশ্বের প্রথম কোনো প্রাক্তন ক্রিকেটার হিসেবে প্রধানমন্ত্রী হয়ে নজির গড়লেন তিনি।

পশ্চিমা সংস্কৃতিতে বেড়ে ওঠা পাকিস্তানের অক্সফোর্ড পড়–য়া এই নতুন প্রধানমন্ত্রী উর্দুতে দুর্বল। ফলে শপথ নেয়ার মাঝেই ক্ষমা চাইতে হল ইমরান খানকে। অনেকেই কটাক্ষ করলেন- নিজের রাষ্ট্রভাই ঠিকমতো বলতে পারেন না প্রধানমন্ত্রী।

রাষ্ট্রপতি ভবনেই নবনির্বাচিত প্রধানমন্ত্রীর শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠান হয়। এ সময় রাষ্ট্রীয় ভাষা উর্দুতে শপথবাক্য পাঠ করতে গিয়েই ঘটে বিপত্তি। প্রেসিডেন্ট মামনুন হোসেনের উচ্চারণ করা প্রতিটি শপথবাক্য উচ্চারণ করতে গিয়ে হোঁচট খান পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। পুরো শপথবাক্য ঠিকঠাক উচ্চারণ করতে পারছিলেন না তিনি।

শপথবাক্যে ‘মুহাম্মদ (সা.) খাতামুন্নাবিয়ান’ বলার সময় বারবার আটকে যান। এছাড়াও ‘রোজে কেয়ামত’ শব্দটি উচ্চারণ করার সময় ভুল হয়ে যাওয়ায় তিনি বলেও দিলেন, ‘সরি’। এরপরও সমস্ত শপথবাক্য পাঠের সময়ই এমন অপ্রস্তুত পরিস্থিতির মুখে পড়েন ইমরান।

শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে ভারত থেকে উপস্থিত ছিলেন প্রাক্তন ক্রিকেটার সিধু। নতুন এই প্রধানমন্ত্রীর জন্য উপহার হিসেবে সিধু সঙ্গে নিয়ে গেছেন ভারতের বিখ্যাত কাশ্মীরী শাল।

পাকিস্তানের প্লে-বয় খ্যাত সাবেক এই বিশ্বসেরা ক্রিকেটার তার ব্যক্তিজীবন নিয়ে আগেও বারবার বির্তকে জড়িয়ে পড়েছেন, শপথ গ্রহণেও এড়াতে পারলেন না বিতর্ক।



মন্তব্য