kalerkantho


দরিদ্র দেশের বিলাসী প্রেসিডেন্ট, আবাস গগনচুম্বী অট্টালিকায়!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৮ আগস্ট, ২০১৮ ১৪:২৮



দরিদ্র দেশের বিলাসী প্রেসিডেন্ট, আবাস গগনচুম্বী অট্টালিকায়!

লাতিন আমেরিকার সবচেয়ে দরিদ্র দেশ বলিভিয়া।জনসংখ্যার ৪০ শতাংশই চরম দারিদ্র্যসীমার নিচে বাস করে। তিন বেলা ঠিকমতো খাবার জোটে না অনেকের। বেশিরভাগ মানুষেরই মাথা গোঁজার ঠাঁই অতি সাধারণ কক্ষে।অথচ দেশটির প্রেসিডেন্টের বসবাস ২৯ তলা বিশিষ্ট বিলাসবহুল ভবনে। 

রাজধানী লাপাজের কেন্দ্রে সম্প্রতি নির্মাণ করা হয়েছে ২৯ তলাবিশিষ্ট গগনচুম্বী এক অট্টালিকা। শহরের যেকোনো প্রান্ত থেকেই দেখা যায় এ অট্টালিকা। এটাই প্রেসিডেন্টের নতুন বাসভবন। বিলাসবহুল এ ভবনেই বাস করছেন প্রেসিডেন্ট ইভো মোরালেস। 

এদিকে, প্রেসিডেন্টের এমন বিলাসিতার বিরুদ্ধে জনগণের মধ্যে ক্ষোভ দানা বাঁধছে। এই বিক্ষোভের মধ্যেই গত সপ্তাহে ভবনটি উদ্বোধন করেন মোরালেস। ১২০ মিটার উঁচু ভবনটির নাম দেয়া হয়েছে পিপলস’গ্রেট হাউস। স্থানীয় নাম কাসা গ্রান্ডে ডেল পুয়েলবো। ৩ কোটি ৪০ লাখ ডলার খরচ করে এটা নির্মাণ করা হয়েছে। 

মোরালেস ও তার সমর্থকরা বলছেন,  এই ভবন নতুন এক বলিভিয়ার প্রতিনিধিত্ব করছে। এটি প্রেরণা যোগাবে। উন্নয়নের স্বপ্ন বাধবে বলিভিয়ার মানুষের মনে। 

কিন্তু আপামর জনগণ মনে করছে, জনগণের অর্থে এটা প্রেসিডেন্টের  বিলাসবহুল ও অহংকারী প্রকল্প।

জানা গেছে, নতুন বাসভবনের ১ হাজার ৬৮ বর্গমিটার মাপের একটি স্যুইট একাই ব্যবহার করবেন মোরালেস। ব্যক্তিগত লিফট থেকে শুরু করে জিম, ম্যাসেজ কক্ষ আধুনিক সব সুযোগ-সুবিধা রয়েছে এখানে। 

সূত্র: দ্য গার্ডিয়ান 



মন্তব্য