kalerkantho


মদ খেয়ে ওয়ার্ল্ড রেকর্ড দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী ​কেজরিওয়ালের!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১১ আগস্ট, ২০১৮ ১১:৫৫



মদ খেয়ে ওয়ার্ল্ড রেকর্ড দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী ​কেজরিওয়ালের!

ভারতের দিল্লিজুড়ে ছড়িয়ে পড়েছে একটি পোস্টার। আর এই পোস্টারটি করা হয়েছে দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালকে নিয়ে। পোস্টারটিতে দেখা যাচ্ছে, দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী একটি মদের বোতল নিজের মুখের কাছে ধরে রয়েছেন৷পোস্টারে লেখা রয়েছে-একদিনে ৮০,০০০ টাকার মদ খেয়ে কেজরিওয়াল ওয়ার্ল্ড রেকর্ড করেছেন৷ আরো লেখা রয়েছে, গরীবরা না খেতে পেয়ে মারা যাচ্ছে, অন্যদিকে মুখ্যমন্ত্রী জনসাধারণের টাকার অপব্যবহার করছেন৷

এই খবর হ্যাসট্যাগ (#) দারুবাজকেজরিওয়াল নামে ইতোমধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। 

অভিযোগ, দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল ২০ ঘন্টার মধ্যে আতিথেয়তার জন্য ২ লাখ টাকা ব্যয় করেছেন। আর এই অভিযোগকে ভিত্তি করে এবার সমালোচনায় মুখর হয়েছে ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি)। গেরুয়াশিবিরের পক্ষ থেকেই পোস্টারটি তৈরী করা হয়েছে।বিজেপি-আকালি জোটের পক্ষে বিধায়ক মনজিন্দর সিং সিরসা এই পোস্টার সমগ্র দিল্লিতে ছড়িয়ে দেন৷ 

সম্প্রতি কর্ণাটকে কুমারস্বামীর মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথগ্রহণের অনুষ্ঠানে অন্যান্য রাজ্যের নেতাদের আমন্ত্রণে বিপুল পরিমাণ অর্থ ব্যয় হয়। কেজরিওয়ালকে আমন্ত্রণে যে অর্থ ব্যয় হয় তাতে তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে রয়েছেন তিনি৷ কুমারস্বামীর সাত মিনিটের শপথগ্রহণে কর্ণাটক সরকারে মোট ৪২ লাখ টাকা ব্যয় হয়৷ মুখ্যমন্ত্রী চন্দ্রবাবু নায়ডুর জন্য ৮.৭২  লাখ এবং দিল্লির মুখ্যমন্ত্রীর কেজরিওয়ালের জন্য ১.৮৫ লাখ টাকা ব্যয় হয়েছে। 
 
জানা গেছে, বেঙ্গালুরুর একটি হোটেলে দু'ঘন্টার মধ্যে পানাহার বাবদ ৭৬ হাজার টাকা ব্যয় করেন কেজরিয়াল৷ আর তাই নিয়ে বিজেপি নেতা মনোজ তিওয়ারি মদ্যপানের বিষয়টিকে টেনে এনে কটাক্ষ করেন। তিনি টুইটবার্তায় লিখেন, এবার বোঝা যাচ্ছে দিল্লিতে কেন সিসিটিভি বসানো সম্ভবপর হয়নি৷

২৩ মে কুমারস্বামীর শপথগ্রহণ করেন। এই দিন সকাল ৯.৪৯ মিনিটে হোটেল তাজ ওয়েস্ট এন্ডে প্রবেশ করেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী। ২৪ জুলাই ভোর ৫.৪৫ মিনিটে সেই হোটেল থেকে বের হন তিনি। এই ২০ ঘন্টায় তাঁর বিল হয়েছে ১.৮৫ লাখ টাকা৷ 



মন্তব্য