kalerkantho


‘ওষুধ’ সেবনের পর বাচ্চাকে বুকের দুধ খাওয়ালেন মা, শিশুটির মৃত্যু

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৭ জুলাই, ২০১৮ ২২:৪০



‘ওষুধ’ সেবনের পর বাচ্চাকে বুকের দুধ খাওয়ালেন মা, শিশুটির মৃত্যু

যুক্তরাষ্ট্রের পেনসিলভানিয়া অঙ্গরাজ্যে মায়ের বুকের দুধ পান করার পাঁচ ঘন্টা পর ১১ মাস বয়সী এক শিশুর মৃত্যু হয় বলে জানিয়েছেন তদন্তকারী কর্মকর্তারা। গত ২ এপ্রিল ওই শিশুটি মারা যায়।

গত শুক্রবার পেনসিলভানিয়ায় ৩০ বছর বয়সী সামান্তা উইটনি জোনস নামক ওই মায়ের বিরুদ্ধে হত্যার অভিযোগ আনা হয় বলে জানিয়েছে পশ্চিমা সংবাদমাধ্যম।

তদন্তে বলা হয়, শিশুটির রক্তে মেথডন, অ্যামফিটামিন এবং মেথামফেটামিন পাওয়া গেছে। তদন্তকারী কর্মকর্তারাদের ধারণা, জোনসের মাত্রাতিরিক্ত মাদক গ্রহণের কারণে শিশুটি মায়ের দুধ পান করার পর মারা গেছে।

ডেপুটি ডিসট্রিক এ্যার্টনি ক্রিসটিন ম্যাকলরয় বলেন, তদন্ত এখনও চলমান রয়েছে। অভিযোগ প্রমাণিত হলে জোনসের যাবজ্জীবন কারাভোগের শঙ্কাও রয়েছে।

ফক্সনিউজ জানিয়েছে, সন্তানসম্ভবা থাকার সময় যে প্রচণ্ড ব্যথা হতো তা থেকে মুক্তির জন্য ওষুধ হিসেবে এক ধরনের পেইনকিলার নিতেন জোন্স। উচ্চ মাত্রার মাদক দিয়ে তৈরি ওই পেইনকিলারে এক পর্যায়ে আসক্ত হয়ে পড়েন তিনি। এ থেকে মুক্তি পেতে তিনি চিকিৎসকের পরামর্শে অন্য একটি ওষুধ সেবন করছিলেন।

মামলার বিবরণে বলা হয়েছে, গত ২ এপ্রিল জোনস বাইরে থেকে এসে দেখেন তার বাচ্চা খুব কান্না করছে। তখন তিনি খুবই ক্লান্ত থাকায় বাচ্চাকে এক বোতল দুধ তৈরি করে দেয়ার চেয়ে নিজের বুকে টেনে নেন, এবং বুকের দুধ খাওয়ান।

কিছুক্ষণ পরে খেয়াল করেন বাচ্চাটির নাক মুখ দিয়ে রক্ত বের হচ্ছে। সাথে সাথে পুলিশে ফোন করলে তারা এসে এম্বুলেন্সে করে শিশুটিকে হাসপাতালে নিয়ে যায়। ঘণ্টা পাঁচেক পর তার মৃত্যু হয়। চিকিৎসকরা জানান, মায়ের দুধের সাথে মিশে যাওয়া উচ্চ মাত্রার মাদকের প্রভাবে শিশুটি হার্ট অ্যাটাকে মারা গেছেন।



মন্তব্য