kalerkantho


গাজায় ঈদ আসে, শান্তি ফেরে না!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৫ জুন, ২০১৮ ২১:৩২



গাজায় ঈদ আসে, শান্তি ফেরে না!

ঈদ উপলক্ষে বেজায় খুশি ফিলিস্তিনের এই দুই শিশু।

তেল আভিভ থেকে পবিত্র ভূমি জেরুজালেমে মার্কিন দূতাবাস সরিয়ে নিয়ে যাওয়ার ঘটনায় কয়েকদিন আগেই ব্যাপক বিক্ষোভ করেছে ফিলিস্তিনিরা। তাদের শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভে রক্তের হলি খেলেছে ইসরায়েলি স্নাইপারেরা।

সেই অবরুদ্ধ গাজাতেও এসছে ঈদ। অথচ চলতি বছরের মে মাসে সেখানকার বাসিন্দারা অন্তত তিনশ ১৯ জনকে হারিয়েছেন। তাদের সবাইকে হত্যা করেছে ইসরায়েলি সেনারা।

তাদের ঈদ অনেকটাই কারাবন্দিদের মতো। বঞ্চনাকে সঙ্গী করে ঈদ উদযাপন করেন ফিলিস্তিনিরা।  ন্যায্য মূলের চেয়ে অনেক ছাড় দিয়ে পণ্য বিক্রি করলেও গাজার বেশিরভাগ মানুষ কেনাকাটা করতে পারেন না। ফলে ঈদে নামাজ পড়াটাই তাদের কাছে মুখ্য। অন্য কোনো হাসি-আনন্দ তাদের জীবনে আসে না।

তবে মানুষজন বাজারে যান। সব দেখেন; কিন্তু সাধ্য না থাকায় কেনাকাটা না করেই ফিরে যান বাড়ি। প্রাপ্ত বয়স্করা এসব বুঝলেও, শিশুরা সেসব বোঝে না। সে কারণে জেদ ধরে বাজারে গিয়ে কান্নাকাটি করতে থাকে শিশুরা।

আনাদলু নিউজ অ্যাজেন্সির খবরে বলা হয়, সোহা আহমেদ তার বাবার সঙ্গে বাজারে গিয়ে খেলনা কেনার বায়না ধরে। কিন্তু তার বাবা খেলনা কিনে দিতে অপারগতা প্রকাশ করলে সে কান্নাকাটি শুরু করে দেয়।

তার বাবা সাফ জানিয়ে দেন, অল্প দামে মেয়ের জন্য জামা কিনতে এসেছেন। খেলনা কেনার মতো টাকা তার কাছে নেই।

যারা চাকরিজীবী তাদের অবস্থাও অভিন্ন। এক সপ্তাহ আগে সেখানকার অনেকেই বেতন পেয়েছেন। তবে পুরো বেতন পাননি। সেই আংশিক বেতন থেকে আগের মাসের ধার-দেনা পরিশোধ করতে হচ্ছে।



মন্তব্য