kalerkantho


গণভোটে গর্ভপাতের পক্ষে রায়

গর্ভপাত বৈধ হচ্ছে আয়ারল্যান্ডে

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৮ মে, ২০১৮ ১২:০৭



গর্ভপাত বৈধ হচ্ছে আয়ারল্যান্ডে

ছবি প্রতীকী

ঐতিহাসিক গণভোটে গর্ভপাতের পক্ষে রায় দিয়েছে আয়ারল্যান্ডের জনগণ। এই ভোটে গর্ভপাত নিষিদ্ধকারী আইন বাতিলের পক্ষে মত দেয় ৬৬.৪ শতাংশ ভোটার। আর পক্ষে ছিল ৩৩.৬ শতাংশ। গত শুক্রবার ভোটের পর গত শনিবার ফল প্রকাশ করা হয়।

বর্তমান আইনে শুধু মায়ের জীবন ঝুঁকির মুখে থাকলে গর্ভপাতের অনুমতি দেওয়া হয়। ধর্ষণ বা ভ্রূণের ক্ষতির কারণে প্রাণঘাতী হয়ে উঠতে পারে, এমন অস্বাভাবিকতার ক্ষেত্রে গর্ভপাতের অনুমোদন মেলে না। আয়ারল্যান্ডের সংবিধানের অষ্টম সংশোধনীতে মা ও তাঁর গর্ভস্থ ভ্রূণের সমঅধিকার নিশ্চিত করা হয়েছে। একমাত্র ডোনেগাল নামে একটি সাংবিধানিক এলাকা এই সংশোধনী বহাল চেয়ে ভোট দেয়।

এই ভোটের পর আইরিশ পার্লামেন্ট ডেইলের পক্ষে উদার প্রশাসন তৈরিতে আরো পদক্ষেপ গ্রহণে সহায়ক হবে। এর আগে ২০১৫ সালে ডেইল সমলিঙ্গ বিয়ের বৈধতা অনুমোদন দিয়ে এক গণভোটের আয়োজন করে।

গর্ভপাতের অধিকারের পক্ষে প্রচার চালান প্রধানমন্ত্রী লিও ভারাদকার। তিনি বলেন, ‘আয়ারল্যান্ডের জন্য এ এক ঐতিহাসিক দিন।’ গণভোটের মধ্যে দিয়ে ‘প্রায় বিপ্লব’ ঘটে গেছে। রাজধানী ডাবলিনে জনগণের উদ্দেশে দেওয়া এক ভাষণে তিনি বলেন, আইরিশ জনগণ নারীদের নিজেদের পছন্দ ও বিশ্বাস বেছে নেওয়ার ব্যাপারে আস্থা ও সম্মানের প্রকাশ ঘটিয়েছে।

এখন এই আইনের একটি খসড়া আগামীকাল মঙ্গলবার মন্ত্রিসভার তোলা হবে। এ বছর শেষ হওয়ার আগেই এটি আইন হিসেবে বলবৎ হবে। বর্তমান আইন অনুসারে, গর্ভপাতকারী নারীর যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেওয়া হয়।

এই আইনের পক্ষে প্রচারকারীরা জানিয়েছে, তারা রায় মেনে নিয়েছে। এ নিয়ে নতুন করে কোনো আন্দোলনে তারা নামবে না। সূত্র : বিবিসি, এএফপি।



মন্তব্য