kalerkantho


জেরুজালেম থেকে ফিলিস্তিনিদের সরাতে ইসরায়েলের নতুন পাঁয়তারা!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৬ মে, ২০১৮ ২০:২৯



জেরুজালেম থেকে ফিলিস্তিনিদের সরাতে ইসরায়েলের নতুন পাঁয়তারা!

ফিলিস্তিনি আইন পরিষদের সদস্য আহমাদ আতাউন বলেন, নির্বাসন অনেকটাই মেরে ফেলার মতো। জেরুজালেমের সঙ্গে আমার সম্পর্ক কী তা বলে বোঝাতে পারবো না। এটা অনেকটা আত্মার সঙ্গে ব্যক্তির সম্পর্কের মতো।

তিনি আরো বলেন, আমার অবস্থানস্থল থেকে মাত্র কয়েক মিটার দূরে জেরুজালেম। অথচ আমি সেখানে যেতে পারছি না। ফলে আমার যে কী পরিমাণ কষ্ট হচ্ছে, তা বলে বোঝাতে পারবো না।

আতাউন ছাড়াও ফিলিস্তিনি আইন পরিষদের সদস্য মুহাম্মদ তোতাহ, মুহাম্মদ আবু তাইর এবং ফিলিস্তিনের সাবেক একজন মন্ত্রী খালিদ আবু আরাফেহকে জোরপূর্বক পূর্ব জেরুজালেম থেকে বের করে দেওয়া হয়েছে। জেরুজালেমের সঙ্গে বর্তমানে কাগজে কলমে কোনো সম্পর্ক নেই তাদের।

ইসরায়েলের আনুগত্য স্বীকার না করায় ২০১১ সালে ইসরায়েলি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী তাদের বসবাসের বৈধ কাগজপত্র নিয়ে নেওয়ার পর বের করে দেন। অথচ পূর্ব জেরুজালেমে রয়ে গেছে তাদের পরিবার। গত কয়েক বছরে এক বারের জন্যও বাবাকে দেখতে পারেনি আতাউনের অাট বছরের মেয়ে।

আতাউন বলেন, যখন সে বাড়ি থেকে বের হয়ে স্কুলে যাবে কিংবা স্কুল থেকে ফিরবে, ওই সময় শুধু একবার মেয়েকে দেখতে চাই আমি।

গত ২৯ এপ্রিল ইসরায়েলের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় নতুন এক আইন পাস করেছে। তাতে বলা হয়েছে, জেরুজালেমে কেউ ইসরায়েলের আনুগত্য স্বীকার না করলে তার জেরুজালেমে বসবাসের অধিকার কেড়ে নেওয়া হবে।

মানবাধিকার বিষয়ক সংগঠনগুলো সেই আইনের তীব্র নিন্দা জানিয়ে আসছে। বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন, যারা ইসরায়েলি রাষ্ট্রের সমালোচনা করে বেছে বেছে তাদেরই জেরুজালেম থেকে বের দেওয়ার জন্য নতুন এই আইন ব্যবহার করবে ইসরায়েলি সেনারা।



মন্তব্য