kalerkantho


'কবরের মতো ইসরায়েলের কারাগার'

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৭ এপ্রিল, ২০১৮ ২০:১৩



'কবরের মতো ইসরায়েলের কারাগার'

মাত্র ১৫ বছর বয়সে চোখের সামনে দেখেছেন ইসরায়েলি বাহিনীর তাণ্ডব। ১৯৯৪ সালে তার চোখের সামনেই ইসরায়েলি বাহিনী আবু সাবেয়ীহ এর পরিবারের সদস্যদের খুন করেছেন। ওই দিন ২৯ জন নিহত ও শতাধিক আহ ত হয়েছিলেন।

ইসরায়েলি একজন স্যাটেলারকে খুন করার অভিযোগে ২০১৫ সালের ডিসেম্বরে সাবেয়ীহসহ তার আরো তিন বোনকে হেনস্থা করতে থাকে ইসরায়েলি বাহিনী। ওই দিন আর ধৈর্য্য ধরে থাকতে পারেননি সাবেয়ীহ। প্রতিবাদ জানিয়েছেন।

সে ঘটনায় ১৬ মাস ইসরায়েলের কারাগারে আটক থাকতে হয়েছে তাকে। তিনি জানান, সেখানকার কারাগার আর কবরের মধ্যে তেমন একটা পার্থক্য নেই।

আটকের পর যেখানে রাখা হয়েছিল, সেখানকার অবস্থাও ছিল বীভৎস। হাত বেঁধে, চোখ বেঁধে অন্ধকার ঘরে ফেলে রাখার অভিযোগ করেন তিনি।

তিনি আরো বলেন, মেঝে ছিল একেবারে স্যাঁতস্যাঁতে, ঠান্ডা। ঘণ্টার পর ঘণ্টা ওইভাবে ফেলে রাখা হয়েছিল। পরে সেনারা এসে মাথার চুলের ক্লিপ থেকে শুরু করে হিজাবও খুলে নিয়ে গেছে।

তিনি আরো বলেন, সেখানকার পরিস্থিতি এতোটাই জঘন্য যে, না দেখলে কেউ কল্পনাও করতে পারবে না। তবে আমি কখনোই ইসরায়েলি সেনাদের বুঝতে দিতাম না যে ভেঙে পড়েছি। তবে তারা যখন কেউ থাকতো না, ওই সময় নীরবে চোখের পানি ফেলতাম। একটা সময় মনে হতো, চোখ দিয়ে বুঝি আর পানি বের হবে না, এবার রক্ত বেরিয়ে আসবে।


মন্তব্য