kalerkantho


পাল্টাপাল্টি চুম্বনে মারা গেলেন বিখ্যাত সাপুড়ে ...

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২০ মার্চ, ২০১৮ ১২:০৪



পাল্টাপাল্টি চুম্বনে মারা গেলেন বিখ্যাত সাপুড়ে ...

অবশেষে সাপের সঙ্গে পাল্টাপাল্টি চুম্বনে মারা গেলেন মালয়েশিয়ার বিখ্যাত সাপুড়ে। মালয়েশিয়ার অগ্নি নির্বাপক কর্মী আবু জারিন হুসেন। বিষধরদের সঙ্গী হিসেবেই পরিচিত তিনি। দিনযাপনও ছিল কিং কোবরাদের সাথে। মালয়েশিয়া বিখ্যাত বা কুখ্যাত বিষধর সাপের জন্য। প্রায় ২৬ প্রজাতির বিষধর সাপ পাওয়া যায় এখানে যাদের ছোবলে মৃত্যু অনিবার্য। দমকল কর্মী হিসেবে এই দেশে সাপ ধরার কাজও করতে হয়। আবুও করতেন। সাপ ধরে‚ পোষ মানিয়ে আবার ছেড়ে দিতেন বনাঞ্চলে। এ কাজ তিনি শিখেছিলেন বাবার কাছে। তিনি ছিলেন নামী সাপুড়ে। দশ বছর ধরে সাপ নিয়েই ঘর করছিলেন আবু।

ইন্টারনেটের ভাইরাল তাঁর দিনযাপনের ভিডিওগুলিও। ভিডিওগুলিতে দেখা গেছে, কোথাও তিনি কাজ করছেন, পাশে সহচরী হিসেবে কিং কোবরা,  কোথাও বা জিমে, সঙ্গী সেই কোবরা। সাপ নিয়ে এমনিই মানুষের মনে অত্যধিক ভীতি। সকলেই মনে করেন সাপ অতিরিক্ত হিংস্র ও অকারণেই আক্রমণাত্মক। সেই ধারণাকেই ভুল প্রমাণিত করে দীর্ঘদিন বাস করেছেন সাপেদের সঙ্গে। 

গতবছর আন্তর্জাতিক শো ‘এশিয়া’জ গট ট্যালেন্ট ‘প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণও করেন আবু। মঞ্চে কোবরা নিয়ে বিপজ্জনক কার্যকলাপ দেখিয়ে হাড়হিম করা পরিস্থিতি সৃষ্টি করেছিলেন। প্রায় ২৬ বার জীবনঘাতী কামড় খেয়েছেন আবু। কোমা পর্যায় থেকেও আবার ফিরে এসেছেন প্রেমিকা কোবরার কাছে। তারপরেও সাপের মুখচুম্বন করেছেন তিনি। তবে এবার আর শেষ রক্ষা হল না। পোষ্য কোবরার ছোবলেই প্রাণ হারালেন স্নেক হুইস্পারার।


মন্তব্য