kalerkantho


যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের বোনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৬ মার্চ, ২০১৮ ১৬:৫৫



যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের বোনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা

রাজতান্ত্রিক সৌদি আরবের সিংহাসনের ভবিষ্যত উত্তরাধিকারী (ক্রাউন প্রিন্স) মোহাম্মদ বিন সালমানের বোনকে আটক করতে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছেন ফ্রান্সের পুলিশ। স্থানীয় সূত্রের বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা এএফপি বৃহস্পতিবার এ তথ্য জানিয়েছে।

এএফপি জানায়, একজন কর্মীকে পেটাতে মোহাম্মদ বিন সালেমানের বোন হাসা বিনতে সালমান তার দেহরক্ষীকে আদেশ দিয়েছিলেন বলে অভিযোগ রয়েছে। এ প্রেক্ষিতে গত ডিসেম্বরে তার বিরুদ্ধে প্রেপ্তারি পরোয়ারা জারি করা হয়েছিল।

রাজকুমারী হাসা ২০১৬ সাল থেকে ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসের পশ্চিমে মহার্ঘ-মূল্যের ফচ অ্যাভিনূতে বসবাস করে আসছিলেন।

এই ঘটনাটি এমন এক সময় প্রকাশিত হল যখন আসছে সপ্তাহে সৌদি ক্রাউন প্রিন্সের ফ্রান্স সফর করা কথা রয়েছে।

ওই কর্মী জানান, রাজকুমারীরর অ্যাপার্টমেন্টের কিছু সংস্কার কাজের জন্য তাকে ভাড়া করা হয়েছিল। বাসার যে অংশ কাজ করবেন সে অংশের ছবি তোলাতে চটে গিয়েছিলেন হাসা বিনতে সালমান।

তিনি আরও জানান, রাজকুমারীর বয়স ৪০ বছরের মতো হবে। ছবিগুলো তিনি মিডিয়ার কাছে বিক্রি করবেন এমন অভিযোগে তাকে পেটাতে হাসা তার দেহরক্ষীকে আদেশ দিয়েছিলেন। তার মুখে ঘুষি মারা হয়েছিল। তার হাত বেঁধে বাধ্য করা হয়েছিল রাজকুমারীর পায়ে চুমু খেতে। অ্যাপার্টমেন্টটি ত্যাগ করার আগে তার সরঞ্জামও রেখে দেওয়া হয়েছিল।

ল্য পোঁয়া সাময়িকী জানিয়েছে, ‘রাজকুমারী চিৎকার করে বলেন, ওই কুত্তাকে হত্যা কর, তার জীবিত থাকার কোনো অধিকার নেই।’

এএফপি জানিয়েছে, ওই কর্মীর চোট বেশ এতটাই গুরুতর ছিল যে সে আট দিন কাজে যেতে পারেনি। এ বিষয়ে মন্তব্য করতে বলা হলে সৌদি আরবের তথ্য মন্ত্রণালয় কোনো জবাব দেয়নি।

সূত্র: এনডিটিভি



মন্তব্য