kalerkantho


অলিম্পিকে উত্তর কোরিয়ার কমান্ডো চিয়ারগার্ল-দের নিয়ে রহস্য

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ১৮:৪৪



অলিম্পিকে উত্তর কোরিয়ার কমান্ডো চিয়ারগার্ল-দের নিয়ে রহস্য

তারা মোহময়ী। সুঠাম চেহারার লাস্যময়ী। দৃষ্টিতে আছে হাতছানি। এরা উত্তর কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট কিম জং উন এর উপহার। ভয়ঙ্কর রাগী, খ্যাপাটে এক রাষ্ট্রনায়কের অতি পছন্দের। এরা কি নিছকই চিয়ার গার্ল? নাকি ছদ্মবেশধারী উত্তর কোরিয়ার কমান্ডো বাহিনী উঠছে এই প্রশ্ন।

শুক্রবার থেকে শুরু হওয়া শীতকালীন অলিম্পিকে অংশ নিতে উত্তর কোরিয়া থেকে মোট ২৮০ জনের প্রতিনিধি দল এসেছে দক্ষিণ কোরিয়ায়। তার মধ্যে ২২৯ জনই চিয়ার গার্ল।

আরও পড়ুন: মালদ্বীপ ইস্যুতে চীনকে ঠেকাতে ভারতের পাশে যুক্তরাষ্ট্র

কেমন দেখতে তারা? বিশ্বজুড়ে ঘুরছে এই প্রশ্ন। মেলেনি উত্তর। আসলে উত্তর কোরিয়ার রহস্যময় গোপন দুনিয়ার কথা কেউ জানতে পারে না। এবার শীতকালীন অলিম্পিকে দেখা গেল কিমের কথিত রক্ষিতাদের। তারা দেশের হয়ে চিয়ার গার্ল হিসেবে পারফর্ম করবেন।

বিভিন্ন সময়ে রটেছে, উত্তর কোরিয়ার একনায়ক শাসক কিম জং উনের সংগ্রহে আছে এমন সব সুন্দরী নারী যারা হাসতে হাসতে প্রাণ দিতে পারে। তাদের রূপ জৌলুসে চমকে যেতে হয়। কিমের হারেমে আছে এমনই শয়ে শয়ে নারী। যারা অনেকে মিলে কিমের বিকৃত কামকে চরিতার্থ করেন। এতে মজা পান কিম। খুশি হয়ে উপহার দেন। আর রেগে গেলে কোনো সুন্দরীকে হিংস্র কুকুর দিয়ে ছিঁড়ে খাওয়ান। সেই মরণযন্ত্রণা তারিয়ে তারিয়ে উপভোগ করে কিম। সেটা দেখতে হয় বাকি হারেম সুন্দরীদের।

আরও পড়ুন: পাকিস্তানি নারী গোয়েন্দার সেক্সচ্যাট ফাঁদে ভারতীয় বিমান ক্যাপ্টেন!

শীতকালীন অলিম্পিক ঘিরে সাঁড়া পড়েছে দুনিয়ায়। দক্ষিণ কোরিয়ায় হওয়া এই ক্রীড়ানুষ্ঠানে উত্তর কোরিয়ার হয়ে প্রধান অতিথি হয়েছেন কিম জংয়ের বোন কিম ইও জং। তার সঙ্গেই এসেছে চিয়ারগার্লদের টিম। এরা উত্তর কোরিয়ার হয়ে গলা ফাটাবে।

উত্তর কোরিয়া থেকে ২২৯ জন চিয়ার গার্লদের কিছু ছবি প্রকাশ হয়েছে। অলিম্পিক ভিলেজে যাওয়ার আগে দক্ষিণ কোরিয়ার গ্যাপিইয়ং এক্সপ্রেসওয়ের একটি রেস্টহাউসে ধরা পড়েছে কিছু মুহূর্ত। লাল কোট পরা বুকে দেশের পতাকার ব্যাজ সহ তাদের দেখেই চমক লাগছে। এঁরা সকলেই থাকবেন গেম ভিলেজের কাছে ইনজে হোটেলে। শোনা যাচ্ছে অলিম্পিক উপলক্ষে দক্ষিণ কোরিয়ায় আসবেন উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উনের সবচেয়ে ছোট বোন কিম ইও জং। তবে তিনি কবে আসবেন, তা এখনো জানা যায়নি।



মন্তব্য