kalerkantho


বিশ প্রেমিকার খরচ জোগাতে ড্যান্স চ্যাম্পিয়নের কাণ্ড!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৪ জানুয়ারি, ২০১৮ ১১:৫০



বিশ প্রেমিকার খরচ জোগাতে ড্যান্স চ্যাম্পিয়নের কাণ্ড!

দিল্লি পুলিশ আটক করেছে ২২ বছর বয়সী এক ডাকাতকে। তিনি আসলে পেশাদার ডাকাত নন। তবে পেশাদার নৃত্যশিল্পী। চ্যাম্পিয়ন হয়েছিলেন এক প্রতিযোগিতায়। বলিউডে এসেছেন বুকভরা স্বপ্ন পূরণে- একসময় বলিউডের ড্যান্স তারকা বনে যাবেন আর ঝলমলে জীবন কাটাবেন। কিন্তু সে পথে এগোতে অনেক ঘাম ঝরাতে হয়। তবুও যতটা পারা যায় জীবনটাকে উপভোগ করছিলেন। বিশজন প্রেমিকাও ছিল তার। এই জীবন আর ২০ প্রেমিকা সামলাতে প্রচুর অর্থ দরকার। আর সেই প্রয়োজন মেটাতেই ডাকাতির পথে বেছে নিলেন। 

আরো পড়ুন: কুয়েতে অবৈধ বিদেশিদের সাধারণ ক্ষমা, স্বস্তিতে হাজার হাজার বাংলাদেশি!

নাম তার আদনান খান। নিজেকে মিস্টার উত্তরাখন্ড ড্যান্স কম্পিটিশনের বিজয়ী বলে দাবি করেছেন। বেশ কয়েকটি টেলিভিশন রিয়েলিটি শো এর জন্যেও অডিশন দিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু যেভাবে জীবনটাকে চালাতে চান সেভাবে চলতে পারছিলেন না। তাই গত বছর তিন বন্ধুকে নিয়ে দাওয়ার্কা সেক্টর ১২ এর একটি পিৎজা আউটলেটে ডাকাতি করেন। 

দাওয়ার্কার পুলিশ কমিশনার শিবেশ সিং জানান, গত বছরের ডিসেম্বরে ছুরির মুখে ওই পিৎজা আউটলেট থেকে চারজন মিলে ৩ লাখ ৪৫ হাজার রুপি ডাকাতি করেন। পরে ধরা হয় সবাইকে। রাম নামের একজনকে ধরা হয়েছে। তিনি কীভাবে ডাকাতির পরিকল্পনা হয়, কীভাবে তা বাস্তবায়িত হয় তার কথা জানান। 

আরো পড়ুন: যুক্তরাষ্ট্রে স্কুলে সহপাঠির গুলিতে নিহত ২, আহত ১৭

সিং আরো জানান, উত্তম নগরে খানের বাড়ি। গ্রেপ্তার এড়াতে তিনি বিভিন্ন স্থানে পালিয়ে বেড়ান। মুম্বাইয়ে বসবাসের খরচ অনেক বেশি। মাত্র কয়েক মাস থাকতেই তার ৩ লাখের মতো খরচ হওয়ার কথা। ড্যান্স শো থেকে তার নিয়মিত আয় হচ্ছিল না। কিন্তু জীবনটাকে তারকাদের মতো তো চালাতে হবে। পরে খান জানায়, তার ২০ জন প্রেমিকা ছিল। তাদের পেছনে খরচ করতে হতো। সেজন্যে তার খরচ অনেক বেশি। বাধ্য হয়েই ডাকাতি করেন তিনি। 
সূত্র : হিন্দুস্তান টাইমস 


মন্তব্য