kalerkantho


পরীক্ষায় ক্লিনটন-ওবামার চেয়েও বেশি নম্বর তুলেছেন ট্রাম্প?

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৮ জানুয়ারি, ২০১৮ ১৪:২৩



পরীক্ষায় ক্লিনটন-ওবামার চেয়েও বেশি নম্বর তুলেছেন ট্রাম্প?

ছবি : রয়টার্স

ট্রাম্পের চর্বিবহুল দেহটি দেখে তাকে অলস মনে কলরা বড় ভুল হবে। অনেকেই জানেন না যে, মার্কিন প্রেসিডেন্ট এই ৭১ বছর বয়সেও অনেক ব্যায়াম করেন। অবশ্য এমনটা আশা করা উচিত হবে না যে তিনি জিমনেশিয়ামে গিয়ে পেশি গঠনের ব্যায়াম করবেন। ব্যক্তিগত চিকিৎসকরাও এ কাজটি করতে মানা করেছেন। তবে তিনি গল্ফ ময়দানে কিংবা হোয়াইট হাউজেই পর্যাপ্ত ব্যায়াম করেন। 

ওভাল অফিসে সাক্ষাৎকারে বললেন, আমি ব্যায়াম করি। মানে আমি হাঁটি, এটা করি, সেটা করি। পাশের কোনো ভবনে দৌড়ে যাই। মানুষ যা ধারণা করে তার চেয়েও অনেক বেশি শরীরচর্চা করি আমি। 

আরো পড়ুন: ট্রাম্পের স্বাস্থ্যের অবস্থা চমৎকার: ডাক্তারের মতামত

হোয়াইট হাউজের চিকিৎসক ড. রনি জ্যাকসন এর আগেই আশ্বস্ত করেছেন যে, ট্রাম্প চমৎকার স্বাস্থ্য ধরে রেখেছেন। তবে তার ওজন কিছুটা কমানো দরকার। এ ছাড়া আরো স্বাস্থ্যসম্মত খাবার খেতে হবে এবং মাঝে মাঝে ঘাম ঝরাতে হবে। 

ট্রাম্প আরো বলেন, অনেক মানুষই জিমে যান। তারা দুই ঘণ্টা করে ব্যায়ামও করনে। কিন্তু আমি দেখেছি ৫৫ পেরোনোর পর তাদেরই নতুন হাঁটু লাগাতে হয় পায়ে। কোমরেরও একই অবস্থা হয়। আমার এসব সমস্যা নেই। 

শুধু হোয়াইট হাউজের খাত্য তালিকার কিছুটা অংশ বদলাতে হবে পারে বলেই মনে করছেন চিকিৎসক। 

ট্রাম্প মনে করেন, ডেমোক্রেটের বারাক ওবামা এবং রিপাবলিকান জর্জ ডাব্লিউ বুশ ফিটনেসের বিষয়ে অনেক বেশি সচেতন ছিলেন। কিন্তু এর পেছনে প্রতিদিন সময় ব্যায়ের কোনো নির্দিষ্ট সূচি নেই ট্রাম্পের। তিনি গল্ফ খেলেই ব্যায়ামের বড় একটা অংশ সম্পন্ন করেন। গল্ফের ময়দানে হাঁটাহাঁটিতে তার অনেক ব্যায়াম হয়। 

ট্রাম্প বিশালদেহী। তার ৬ ফুট ৩ ইঞ্চি দেহের ওজন ১০৮ কেজি। তবে সবাই দেহের এক দুই পাউন্ড ঝরাতেই পারেন বলে মনে করেন প্রেসিডেন্ট। 

প্রেসিডেন্টের মানসিক অবস্থা পর্যবেক্ষণে পরীক্ষাও দিতে হয়েছে তাকে। ওবামা, বুশ বা ক্লিনটনও বসেছিলেন সেই পরীক্ষায়। উত্তর কোরিয়ার ক্রমাগত হুমকি-ধামকির প্রেক্ষিতে তার মস্তিষ্ক ঠাণ্ডা ও নিখুঁত থাকা উচিত। 

আরো পড়ুন: ইসরায়েলি সেনার গুলিতে ফিলিস্তিনি তরুণ নিহত

সেখানে তিনি সাবেকদের হারিয়ে দেওয়ার ইঙ্গিত দিয়েছেন বক্তব্যে। বলেন, আমার ধারণা তাদের সবার (সাবেক প্রেসিডেন্টদের) বোঝা উচিত যে একজন প্রেসিডেন্ট পাওয়া উচিত যে কিনা এই পরীক্ষায় সেরা নম্বর পাবে। 

প্রতিদিন ব্যায়াম করা হোক বা নাই হোক, সম্প্রতি ট্রেডমিলে দৌড়ের পরীক্ষাতেও তিনি পরীক্ষকদের তুষ্ট করে দিয়েছেন। 
সূত্র : রয়টার্স 



মন্তব্য