kalerkantho


কারাবন্দি অবস্থায় বিয়ে করে ২ সন্তানের বাবা!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৮ জানুয়ারি, ২০১৮ ১১:২১



কারাবন্দি অবস্থায় বিয়ে করে ২ সন্তানের বাবা!

১৫ বছর ধরে কারাগারে আটক আছেন তিনি। তবে কারাবন্দি অবস্থায় বিয়ে করেছেন ১০ বছর আগে। বর্তমানে তার ছয় এবং আট বছরের দু'জন সন্তানও রয়েছে।  

ঘটনাটি ঘটেছে সৌদি আরবে। আর যিনি এমন কাণ্ড ঘটিয়েছেন, সেই ব্যক্তির প্রথমে মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দেন দেশটির আদালত। পরে আপিল করার মাধ্যমে সাজা পরিবর্তন করে যাবজ্জীবন করা হয়।

জামিল নামের ওই কারাবন্দির বয়স এখন ৫৪ বছর। ২০০৭ সালে সাজা পরিবর্তন করে জেদ্দা কারাগারে রাখা হয় তাকে। ২০০৩ সালের মার্চে ব্যাংকিং খাতে দুর্নীতির অভিযোগে আটক হন জামিল।

তার স্ত্রীর নাম জহুর। বিবাহিত কারাবন্দিরা সে দেশে স্ত্রীর সঙ্গে আড়ালে কথা বলতে পারেন। সেই সুযোগ কাজে লাগান জামিল। তার দাবি, স্ত্রী জহুর তার সঙ্গে দেখা করার সময় একান্তে সময় কাটানোর পরই দুই সন্তানের জন্ম দিয়েছেন। তাদের একজনের বয়স ছয় বছর এবং অপরজনের বয়স আট বছর।

বর্তমানে জহুর পুনরায় আপিল করেছেন তার স্বামীকে মুক্ত করার জন্য। তার দাবি, বিয়ে করেছেন কারাবন্দিকে, এখন তার দু'জন সন্তান রয়েছে। কিন্তু সন্তানরা কখনো তার বাবাকে পাশে পেল না। কর্তৃপক্ষ যেন বিষয়টি বিবেচনা করে তার স্বামীকে ছেড়ে দেন।

অারো পড়ুন : নাইজেরিয়ায় জোড়া আত্মঘাতী হামলায় নিহত ১২

তিনি আরো জানান, সবসময় স্বপ্ন দেখি আমার স্বামী মুক্তি পাবে। যখন আপিলের রায়ে তার মৃত্যুদণ্ড বাতিল হয়েছে তার পর থেকে আরো বেশি করে সেই স্বপ্ন দেখি।

তার দাবি, ১৬ বছর ধরে একজনকে আটকে রাখা হয়েছে। সন্তানদের দিকে তাকিয়ে যেন তার স্বামীকে মাফ করে দেওয়া হয়। যাতে করে পরিবারের কাছে ফিরে যেতে পারেন জামিল।

জানা গেছে, জামিলের প্রথম স্ত্রীর তিনজন সন্তান রয়েছে। তবে প্রথম স্ত্রীকে তিনি তালাক দিয়েছেন। প্রথম স্ত্রীর পক্ষের বড় মেয়ের বয়স এখন ২০ বছর।

জহুরের দাবি, মাত্র একটি কিডনি নিয়ে বেঁচে আছেন তার স্বামী। কারাবন্দি হওয়ার দুই বছর আগে নিজের বোনকে একটি কিডনি দিয়েছেন তিনি। সকল বিষয় বিবেচনা করে জামিলকে যেন মুক্তি দেওয়া হয়।

কারা সূত্রের বরাত দিয়ে সৌদি গেজেট বলছে, বর্তমানে পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ পড়েন জামিল। কুরআন মুখস্ত করার পাশাপাশি ইসলামি বক্তব্য শোনেন তিনি।

সূত্র : সৌদি গেজেট



মন্তব্য