kalerkantho


ব্যাননকে শুনানিতে হাজির হতে সমন জারি

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৭ জানুয়ারি, ২০১৮ ১১:১৮



ব্যাননকে শুনানিতে হাজির হতে সমন জারি

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সাবেক চিফ স্ট্র্যাটেজিস্ট স্টিভ ব্যাননকে তলব করেছেন এফবিআইয়ের সাবেক প্রধান রবার্ট মুলার, যিনি ২০১৬ সালের নির্বাচনে ট্রাম্পের প্রচার শিবিরের সঙ্গে রাশিয়ার যোগসাজশের অভিযোগ নিয়ে তদন্তের নেতৃত্ব দিচ্ছেন। কংগ্রেসেরও একটি কমিটিও আলাদাভাবে ওই বিষয়ে তদন্ত করছে। ব্যানন মঙ্গলবার সেই কমিটির শুনানিতেও হাজির হয়েছিলেন বলে জানানো হয়েছে বিবিসির এক প্রতিবেদনে।


আরো পড়ুন:


নিউ ইয়র্ক টাইমসের এক খবরে বলা হয়েছে, স্টিভ ব্যাননকে গ্র্যান্ড জুরির শুনানিতে হাজির হতে সমন জারি করা হয়েছে। ট্রাম্পের ভোটের প্রচারে আমেরিকা ফার্স্ট দর্শনকে একটি আকৃতি দেওয়ার ক্ষেত্রে ব্রাইবার্ট নিউজ নেটওয়ার্কের সাবেক নির্বাহী চেয়ারম্যান ডানপন্থি জাতীয়তাবাদী ব্যাননের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা ছিল। নির্বাচনে জয়ের পর ট্রাম্প তাকে পুরস্কৃত করেছিলেন হোয়াইট হাউজের চিফ স্ট্র্যাটেজিস্টের পদ দিয়ে। কিন্তু হোয়াইট হাউজে ক্ষমতার দ্বন্দ্বে জড়িয়ে গত অগাস্টে ওই পদ হারান ব্যানন।


আরো পড়ুন:


গত নির্বাচনের প্রচারে রাশিয়ার এক আইনজীবীর সঙ্গে বৈঠক করে ট্রাম্পপুত্র রাষ্ট্রদ্রোহমূলক ও দেশপ্রেমহীন কাজ করেছিলেন বলে সাংবাদিক মাইকেল উলফের লেখা ওই বইয়ে মন্তব্য করেছিলেন ব্যানন। তার ওই বক্তব্য মস্কোর সঙ্গে যোগসাজশ নিয়ে তদন্তের পালে নতুন হাওয়া দেয়। এরপর জানুয়ারির শুরুতে প্রকাশিত ফায়ার অ্যান্ড ফিউরি: ইনসাইড দ্য ট্রাম্প হোয়াইট হাউজ বইয়ে ট্রাম্পের ছেলেকে নিয়ে মন্তব্যের কারণে তাকে ব্রাইবার্টের শীর্ষ পদও ছাড়তে হয়।

যুক্তরাষ্ট্রের গোয়েন্দা সংস্থাগুলো বেশ জোরের সঙ্গেই বলে আসছে, ওই নির্বাচনের ফল যাতে রিপাবলিকান প্রার্থী ট্রাম্পের পক্ষে যায়, সেজন্য চেষ্টা চালিয়েছিল রাশিয়া। তবে ট্রাম্প শুরু থেকেই ওই অভিযোগ অস্বীকার করে আসছেন। তার ভাষায়, তাকে নিয়ে এই তদন্ত হচ্ছে ইতিহাসের সবচেয়ে বড় উইচ হান্ট। ক্রেমলিনও বার বার বলে আসছে, এসবে তাদের কোনো হাত নেই।

 



মন্তব্য