kalerkantho


উন বিচক্ষণ ও দক্ষ রাজনীতিক: পুতিন

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৩ জানুয়ারি, ২০১৮ ১০:৪১



উন বিচক্ষণ ও দক্ষ রাজনীতিক: পুতিন

উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উনকে বিচক্ষণ ও দক্ষ রাজনীতিক উল্লেখ করেছেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। কিম জং উন রাজনীতিতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে হারিয়েছেন বলেও মন্তব্য করেন তিনি। মস্কোয় এক সংবাদ সম্মেলনে পরমাণু কর্মসূচি থেকে সরে আসতেও পিয়ংইয়ং-এর প্রতি আহবান জানান তিনি। এরমধ্যেই দ্য ওয়াল স্ট্রিট জার্নালে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে, নানা বাঁধা কাটিয়ে উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের সম্পর্কোন্নয়ন হয়েছে বলে দাবি করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। চলমান সংকট সমাধানে উত্তর কোরিয়া ও যুক্তরাষ্ট্র ইতিবাচক পদক্ষেপ নেবে বলে আশা প্রকাশ করেছে চীন।


আরো পড়ুন: ট্রাম্প-পুতিন প্রথম বৈঠকেই সিরিয়ায়


উত্তর কোরিয়ার পরমাণু কর্মসূচিকে ঘিরে নানা তর্ক-বিতর্কের পর অবশেষে যেন কোরীয় পরিস্থিতির স্বাভাবিক হওয়ার ইঙ্গিত পাওয়া যাচ্ছে। গেল বুধবার পিয়ংইয়ং ও সিউলের মধ্যকার সামরিক হটলাইন খুলে দেয়ার পর বৃহস্পতিবার যোগাযোগের বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য জানায় দক্ষিণ কোরিয়ার একত্রীকরণ মন্ত্রণালয়। দক্ষিণ কোরিয়ার একত্রীকরণ মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র লি ইউগিন বলেন, দক্ষিণ ও উত্তর কোরিয়া সোমবার থেকে শুক্রবার সকাল-বিকাল নিয়মিত সামরিক হটলাইনে যোগাযোগ করছে। এ সময়ে আমরা প্রয়োজনীয় তথ্য আদান-প্রদান করছি।


আরো পড়ুন: জন্মদিনে কুকুর পেয়ে দারুণ খুশি পুতিন


কোরীয় উপত্যকার সংকট সমাধানে যে কোন ইতিবাচক পদক্ষেপকেই শুরু থেকে সমর্থন জানিয়ে আসছে চীন। এবার দেশটির প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুন জে-ইনকে ফোন করে আসন্ন শীতকালীন অলিম্পিকের সফলতা কামনা করেন। শান্তি ও স্থিতিশীলতার স্বার্থে দুই পক্ষের মধ্যকার আলোচনা, সম্পর্ক উন্নয়নের চেষ্টা, পুনর্মিলনী এবং সহযোগিতাকে স্বাগত জানান। একইদিন বর্তমান উত্তেজনা নিরসনে যুক্তরাষ্ট্র ও উত্তর কোরিয়া ইতিবাচক ভূমিকা রাখবে বলে আশা প্রকাশ করেছে চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

সিউলের সঙ্গে আলোচনায় সম্মত হওয়ায় উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উনের প্রশংসা করেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। আলোচনার এ পর্বে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে হারিয়েছেন বলে মন্তব্য করেন তিনি। একইসঙ্গে পরমাণু কর্মসূচি বন্ধে কিম জং উনের প্রতি আহবান জানান পুতিন। পুতিন বলেন, আমি মনে করি এ পর্বে অবশ্যই কিম জং উনের জয় হয়েছে। তিনি তাঁর কৌশলগত লক্ষ্য পূরণ করেছেন। তাঁর পরমাণু অস্ত্রের মজুদ রয়েছে। শক্তিশালী ক্ষেপণাস্ত্র রয়েছে যা বিশ্বের যে কোন অংশে, অন্তত তাঁর শত্রুর ভূখণ্ডে আঘাত হানতে সক্ষম। নিঃসন্দেহে তিনি একজন বিচক্ষণ ও দক্ষ রাজনীতিক। তবে এ ব্যাপারে সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে।

 


মন্তব্য