kalerkantho


দেশজুড়ে বিক্ষোভ, মমতা বললেন ‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌চাষিরা 'ভালো আছেন'

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৩ জানুয়ারি, ২০১৮ ১০:২৫



দেশজুড়ে বিক্ষোভ, মমতা বললেন ‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌‌চাষিরা 'ভালো আছেন'

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির রাজ্য গুজরাটে কৃষকদের বিক্ষোভ প্রশমনে নড়েচড়ে বসতে হয়েছে সরকারকে। বিজেপিশাসিত রাজস্থানেও কৃষক বিক্ষোভের মুখে ঋণ মওকুফের ঘোষণা দিতে বাধ্য হয়েছে সরকার। দেশের নানা প্রান্তে কৃষকদের ক্ষোভের মুহূর্তে নিজের রাজ্যের কৃষকরা সবচেয়ে ভালো আছেন বলে মন্তব্য করেছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি।

মমতার দাবি, ভারতের মধ্যে চাষিরা ভালো থাকেন বাংলাতেই। ভারতবর্ষের যেকোনো কৃষকের তুলনায় আমাদের রাজ্যের কৃষক গর্বে থাকেন, ভালো থাকেন, সুস্থ থাকেন। তারা শুধু দেশের নয়, পৃথিবীতে এক নম্বর, তা প্রমাণ হবে।

আরো পড়ুন : ৮ দিনে ভারতে ৩৪ কৃষকের আত্মহত্যা

তবে কৃষকসভার রাজ্য সম্পাদক ও বর্ধমানের সিপিএম নেতা অমল হালদারের অভিযোগ, গত এক মাসে পূর্ব বর্ধমানেই ফসলের দাম না পেয়ে পাঁচজন চাষি আত্মহত্যা করেছেন। তিনি আরো বলেন, আলুর দাম নেই, আমনের উৎপাদন অনেক কম হয়েছে। ফলে অসহায় অবস্থায় রয়েছেন রাজ্যের চাষিরা।

এদিকে বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ কটাক্ষ করে বলেন, রাজ্যকে মাটি করে উনি মাটি উৎসব করছেন! তার চেয়ে উনি বরং ওই দিকে নজর দিতে পারেন, যাতে আর কোনো কৃষক আত্মহত্যা না করেন। মমতা বলেন, সাম্প্রতিক বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত ৩০ লাখ কৃষকের জন্য ক্ষতিপূরণ হিসেবে এক হাজার দুই শ কোটি টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। ব্যাংক চাষিদের ঋণ দিতে চায় না, সে কারণে সরকার ৭৯ লাখ চাষিকে কিষাণ ক্রেডিট কার্ড দিয়েছে।

আরো পড়ুন : ভারতে পুলিশের গুলিতে ৫ কৃষক নিহত

তিনি আরো বলেন, ১৮৬টি কিষাণ বাজার, বিজ্ঞানসম্মত চাষের জন্য বর্ধমানসহ তিন জায়গায় কৃষি মহাবিদ্যালয় স্থাপন করা হয়েছে। চলতি বছর ৪৫ লাখ চাষির জন্য ৬২৬ কোটি টাকা প্রিমিয়াম দিয়ে দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া কৃষিজমির খাজনাও মওকুফ করে দেওয়া হয়েছে। সিঙ্গুরের ব্যাপারে তিনি আরো বলেন, কৃষিজমি কেড়ে নেওয়া হয়েছিল ওখানে। আমরা ফিরিয়ে দিয়েছি। সোনার ধান ফলছে সেখানে, এটা আমাদের গর্ব।
সূত্র : আনন্দবাজার


মন্তব্য