kalerkantho


হরিয়ানায় এক ঘণ্টায় ৬ জনকে খুন

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২ জানুয়ারি, ২০১৮ ১৯:০৯



হরিয়ানায় এক ঘণ্টায় ৬ জনকে খুন

ভারতের হরিয়ানা রাজ্যের পালওয়ালে এক ঘণ্টায় ৬ জনকে খুন করা হয়েছে। লোহার রড দিয়ে নির্মমভাবে পিটিয়ে ওই ৬ জনকে খুন করেছে এক অবসরপ্রাপ্ত সেনা। জানা গেছে, হাসপাতালে এক নারীকে খুন করার পর আগ্রা রোডে আরও পাঁচজনকে খুন করে ওই অবসর প্রাপ্ত সেনা সদস্য। পুলিশ এই হত্যাকাণ্ডের সঠিক কারণ জানাতে পারে নি এখনও। তবে খুনিকে আটক করা হয়েছে। তার নাম নরেশ ধনকাদ (৪৫)। সে ভারতীয় সেনাবাহিনীর সাবেক লেফটেন্যান্ট। এখন সে হরিয়ানা কৃষি বিভাগে চাকরি করে।

মঙ্গলবার ভোররাতে ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লি থেকে প্রায় ৮০ কিলোমিটার দূরে এ ঘটনা ঘটে।  হত্যাকাণ্ডের পর পালওয়াল শহরে উচ্চ সতর্কতা জারি করেছে কর্তৃপক্ষ।

জানা গেছে, অন্তসত্ত্বা ননদকে ভর্তি করিয়ে অপেক্ষা করছিলেন পঁয়ত্রিশের বছরের অঞ্জুম। হঠাৎ তাঁর ওপর লোহার রড নিয়ে হামলা চালায় বছর নরেশ ধনকাদ। পিটিয়ে হত্যার পর অঞ্জুমের লাশ হাসপাতালের ওয়াশরুমে লুকিয়ে রাখে। এরপর হাসপাতালেই রড নিয়ে মিনিট পাঁচেক ঘুরে বেড়ায় সে।

কিন্তু রাতের হাসপাতালে পর্যাপ্ত নিরাপত্তা না থাকায় হাসপাতালে কেউই সাহস করে খুনিকে ধরতে এগিয়ে আসেনি। পরে রাস্তায় বেরিয়ে পড়ে সে। পুলিশকে খবর দেওয়ার পর খুনির অবস্থান বুঝতেই কিছুটা সময় কেটে যায়। সবকটি খুনই হয় আগ্রা রোড থেকে মিনার বাজারের মধ্যে। সিসিটিভি ফুটেজ দেখে শেষপর্যন্ত সকাল সাড়ে ছ’টার দিকে খুনিকে গ্রেপ্তার করে হরিয়ানা পুলিশ।

সংবাদ সম্মেলনে এক পুলিশ কর্মকর্তা জানিয়েছেন, পুলিশ সবগুলো মৃতদেহ দুই-তিন কিলোমিটারের ব্যবধানে খুঁজে পেয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে এক ঘণ্টার মধ্যেই খুনগুলো করেছে ওই খুনি। পুলিশ অভিযান চালিয়ে পালওয়ালের আদর্শ নগর এলাকায় থেকে ওই ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করে। গ্রেপ্তার করতে যাওয়ার সময় পুলিশের ওপর হামলা চালায় খুনি।

এই ঘটনায় গোটা হরিয়ানা জুড়ে থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে।



মন্তব্য