kalerkantho


দিল্লিতে এবার চলন্ত বাসে গলা কেটে হত্যা!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৫ নভেম্বর, ২০১৭ ১৬:৩৫



দিল্লিতে এবার চলন্ত বাসে গলা কেটে হত্যা!

প্রতীকী ছবি

ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লিতে সবরকম অপকর্মের জন্য চলন্ত বাসকেই যেন বেছে নিয়েছে অপরাধীরা! চলন্ত বাসে ধর্ষণের মত বেশকিছু ভয়ানক ঘটনার ধারাবাহিকতায় এবার চলন্ত বাসেই গলা কেটে হত্যা করা হল এক যুবককে! হত্যাকারী প্রফেশনাল কেউ নয়; তারা সবাই স্কুলপড়ুয়া কিশোর। মোবাইল চুরি নিয়ে ঝগড়ার এক পর্যায়ে এই ভয়ানক ঘটনা ঘটায় কিশোর অপরাধীরা!

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে ভারতীয় গণমাধ্যমগুলো জানিয়েছে, এই ঘটনাটি দুদিন আগের বৃহস্পতিবারের।  যে যুবক খুন হয়েছেন, তাঁর বয়স আনুমানিক ২৫।  লাজপতনগর থেকে তিনি বদরপুরগামী বাসটিতে উঠেছিলেন। এর পরে আশ্রম চক থেকে বাসে ওঠে ৫-৬ জন কিশোর। সবার পরনেই ছিল স্কুল ইউনিফর্ম। বয়স ১৩ থেকে ১৬র মধ্যে। লাজপতনগর থেকে ওঠা যুবকের সঙ্গে কিছুক্ষণের মধ্যেই ওই স্কুলছাত্রদের বাদানুবাদ শুরু হয়ে যায়।

আক্রান্ত ব্যক্তি অভিযোগ করছিলেন, ওই কিশোররা তার মোবাইল চুরি করেছে। তাতেই শুরু হয় ঝগড়া।  এক পর্যায়ে এক কিশোর ওই ব্যক্তির গলা কেটে দেয়।

ভয়ঙ্কর ঘটনাটি ঘটানোর পর স্কুলছাত্র কিশোররা বাসচালককে ভয় দেখিয়ে বাস থামায় এবং সদলবলে নেমে যায়। আক্রান্ত যুবককে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পর চিকিৎসকেরা মৃত ঘোষণা করেন।

ঘটনার আকস্মিকতায় হতচকিত হয়ে গেছেন প্রত্যক্ষদর্শীরা।  অভিযুক্তদের কাউকেই এখনও চিহ্নিত করা যায়নি। যে অস্ত্র দিয়ে যুবকের গলা কাটা হয়েছে সেটার খোঁজও পাওয়া যায়নি। তবে দিল্লি পুলিশ জানিয়েছে, স্কুল ইউনিফর্মের বিবরণ জেনে লাজপতনগর এবং মথুরা রোড এলাকায় মোট ১৫টি স্কুলকে চিহ্নিত করা হয়েছে। স্কুলগুলির স্টুডেন্টস রেকর্ড পরীক্ষা করা হচ্ছে।


মন্তব্য