kalerkantho


গৃহযুদ্ধের পথে এগোচ্ছে স্পেন?

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৪ অক্টোবর, ২০১৭ ১৫:২২



গৃহযুদ্ধের পথে এগোচ্ছে স্পেন?

বিশেষজ্ঞদের মতে, যত সময় যাচ্ছে সে সম্ভাবনাই জোরালো হচ্ছে। এক দিকে স্পেন সরকার জানিয়ে দিয়েছে, কাতালুনিয়া প্রদেশের স্বশাসন কেড়ে নিয়ে তাকে রাজধানী মাদ্রিদের কেন্দ্রীয় সরকারের অধীনে আনছে তারা, অন্যদিকে পাল্টা কাতালুনিয়া প্রদেশের প্রশাসনও বড় কোনও পদক্ষেপের পথে হাঁটতে চলেছে।

যার ইঙ্গিত মিলেছে গতকাল সোমবার। জানানো হয়েছে, আগামী বৃহস্পতিবার জরুরি বৈঠকে বসতে চলেছে কাতালুনিয়ার পার্লামেন্ট।

ধারণা করা হচ্ছে ভোটাভুটির মাধ্যমে স্বাধীনতা ঘোষণা করার পথে হাঁটতে পারেন প্রেসিডেন্ট কাতালুনিয়ার প্রেসিডেন্ট পুঁইগদেমন্ট। তাঁর হাতে জনসমর্থন তো রয়েছেই। কারণ ১০ অক্টোবরের গণভোটে কাতালুনিয়ার স্বাধীনতার পক্ষে রায় দিয়ে দিয়েছে এই প্রদেশের মানুষজন।

উদ্বেগের বিষয় হল, যে দিন কাতালুনিয়ার পার্লামেন্ট বৈঠকে বসছে, তার ঠিক ২৪ ঘণ্টা পরেই স্পেনীয় সংসদর উচ্চকক্ষ সিনেটের সভা বসার কথা, যেখানে এই স্বশাসন কেড়ে নেওয়ার নির্দেশ জারি হতে পারে।

এমনটা হলে পর মুহূর্ত থেকেই আইনি বৈধতা হারাবেন কাতালুনিয়ার পুঁইগদেমন্ট এবং তাঁর সরকার। তাঁকে সরিয়ে নতুন প্রেসিডেন্ট কিংবা প্রশাসন নিয়োগ করবে মাদ্রিদ।

সে ইঙ্গিতই দিয়ে দিয়েছেন স্পেনের উপ প্রধানমন্ত্রী।

তাঁর বক্তব্য, পুঁইগদেমন্টের নীতি দেশের ঐক্যের পক্ষে অনুকূল নয়। বর্তমান পরিস্থিতিতে এই সিদ্ধান্ত বোধহয় খুব একটা অস্বাভাবিক কিছু নয়, কারণ এই পুঁইগদেমন্টের নেতৃত্বেই মূলত কাতালুনিয়ার স্বাধীনতার আন্দোলন চূড়ান্ত রূপ নিয়েছে।

সিনেট অনুমোদন দিলে, স্বশাসন হারানো কাতালুনিয়ায় আগামী ৬ মাসের মধ্যে নতুন ভোট করাতে হবে। কাতালুনিয়া সরকার আগে থেকেই জানিয়ে দিয়েছে তারা এই ভোট কোনও মতেই হতে দেবে না। এ দিন ওই প্রদেশের বিদেশমন্ত্রী রাউল রোমেভা বলেন, ‘স্পেনের চাপিয়ে দেওয়া সিদ্ধান্ত আমরা মেনে নেব না। ’

একই সঙ্গে ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের বিরুদ্ধে হাত গুটিয়ে বসে থাকার অভিযোগ করেন তিনি। তাঁর কথায়, ‘ইইউ থাকতে এটা হচ্ছে কী করে! কোথায় গণতন্ত্র? স্পেন যদি এ ভাবে আমাদের স্বশাসন কেড়ে নিতে সক্ষম হয়, তাহলে আগামী দিনে ইইউ-র মর্যাদা কি থাকবে? কেউ সম্মান করবে? কাতালুনিয়ার মানুষ কখনও এ সব মেনে নেবে না। ’

পর্যবেক্ষকদের এখন একটা বিষয়ই ভাবাচ্ছে, স্পেনের নির্দেশ উপেক্ষা করে কাতালুনিয়া যদি একতরফাভাবে স্বাধীনতা ঘোষণা করে দেয় তা হলে কী হবে? মাদ্রিদ ছেড়ে কথা বলবে না, কাতালানরাও পথে নামবে। সেক্ষেত্রে চূড়ান্ত বিশৃঙ্খলা তৈরি হবে স্পেনজুড়ে। যার প্রভাব ইউরোপের অন্য অংশেও পড়বে।

সূত্র: টাইমস অফ ইন্ডিয়া, দ্য সান


মন্তব্য