kalerkantho


পুরুষদের বুদ্ধির সিকিভাগও নেই, গাড়ি চালানো উচিত নয় নারীদের

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ১৬:৪৯



পুরুষদের বুদ্ধির সিকিভাগও নেই, গাড়ি চালানো উচিত নয় নারীদের

নারীরা গাড়ি চালাবে! কী করেই বা চালাবে? পুরুষদের বুদ্ধির সিকিভাগও যে তাদের নেই। এভাবেই ঈশ্বর তাঁদের সৃষ্টি করেছেন।

সুতরাং গাড়ির স্টিয়ারিংয়ে হাত রাখা নারীদের মোটেও উচিত নয়। সৌদি আরবের এক মৌলবি সম্প্রতি পেশ করলেন এই অসাধারণ তত্ত্বটি। সৌদির এক ধর্মীয় ফতোয়া সংগঠনের প্রধান শেখ সাদ আল হাজারি। এ বক্তব্য তাঁরই। একটি ভিডিও বার্তা ছড়িয়ে পড়েছে সম্প্রতি। নেটদুনিয়ায় বহু মানুষ সে ভিডিও শেয়ার করেছেন। সেখানেই দেখা যাচ্ছে, আল হাজারি মহিলাদের সম্পর্কে এই মন্তব্য করছেন। ওই মৌলবির স্পষ্ট যুক্তি, মহিলাদের ড্রাইভিং লাইসেন্স দেওয়া উচিত নয় সৌদির ট্রাফিক পুলিশের। কেননা মহিলাদের মস্তিষ্কই সক্রিয় নয়।

যদি কোনও পুরুষের অর্ধেক মস্তিষ্ক সক্রিয় থাকে, তাহলে তাঁকে কি ড্রাইভিং লাইসেন্স দেওয়া হয়? হয় না। তাহলে নারীকে কেন দেওয়া হবে? তাদের মস্তিষ্কের সক্রিয়তা তো পুরুষের সিকিভাগ। নারীরা কখনওই পুরুষের সমতুল্য হতে পারে না, এই তাঁর সাফ যুক্তি। একজন খাঁটি মুসলমান রমণীর ক্ষেত্রে অবশ্য এই সিকিভাগ বুদ্ধি নিয়ে কোনও সমস্যা নেই, মত মৌলবির।

অর্থাৎ হরেদরে তিনি জানিয়ে দিলেন, মুসলিম মহিলাদের গাড়ি চালানোর কোনও প্রশ্নই ওঠে। সেদেশে অবশ্য এরকম কোনও আইন নেই। তবে এখনও কোনও মহিলাকে ড্রাইভিং লাইসেন্স দেওয়া হয়নি। এ নিয়ে জোরদার দাবিও উঠেছে। স্টিয়ারিংয়ে হাত রাখতে মরিয়া মহিলারা। সামাজিক আন্দোলন ক্রমশ দানা বাঁধছে। ঠিক সেই সময়ই ফতোয়া সংগঠনের প্রধানের এই বক্তব্য বুঝিয়ে দিল, সমাজের কাঁটা আসলে কোন বিন্দুতে অনড়।

 


মন্তব্য