kalerkantho


ঘরজামাই হওয়াই কাল, শ্বশুরের হাতে যুবক খুন

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২২ আগস্ট, ২০১৭ ০০:১৩



ঘরজামাই হওয়াই কাল, শ্বশুরের হাতে যুবক খুন

বিয়ের পর থেকে শ্বশুরবাড়িতেই ঘরজামাই হিসাবে থাকতেন শেখ নাসিম (৩২)। রবিবার গভীর রাতে তাঁকে বালিশ চাপা দিয়ে শ্বাসরোধ করে খুন করার অভিযোগ উঠল শ্বশুর-শাশুড়ি ও স্ত্রীর বিরুদ্ধে।

শুধু খুনই নয়, রীতিমতো পরিকল্পনা করে বস্তায় জামাইয়ের মৃতদেহ ভরে তা লোপাটের চেষ্টাও করে শ্বশুর, শাশুড়ি। ঘটনার পরেই উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে এলাকায়।

এ সময় হাওড়ার জয়পুর থানার মৈনানে নাসিমের স্ত্রী ফতেমাদের বাড়ির দরজা, জানালা ভাঙচুর করেন প্রতিবেশীরা। আগুন লাগিয়ে দেওয়ার চেষ্টা হয় বাড়ির টালির চালে। পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। ১০ বছর আগে নাসিমের সঙ্গে বিয়ে হয় ফাতেমার। বিয়ের পর থেকে শ্বশুরবাড়িতেই থাকতেন নাসিম। এই নিয়ে বেশ কয়েকদিন ধরে চলছিল অশান্তি।

প্রতিবেশীদের অভিযোগ, নাসিমকে প্রায়ই টাকার জন্য চাপ দিত শ্বশুরবাড়ির লোকরা।

নাসিমের সামান্য রোজগারে খুশি ছিল না তাঁর স্ত্রীও। আরও বেশি টাকা রোজগারের জন্য তাঁকে চাপ দিতে থাকে শ্বশুরবাড়ির লোকরা। অভিযোগ, প্রায়ই তাঁকে খেতে দেওয়া হতো না। নানাভাবে তার উপর অত্যাচার চালাত শ্বশুর ও শাশুড়ি।

রবিবার রাতে নাসিম ঘুমিয়ে পড়লে তার মুখে বালিশ চেপে ধরে অভিযুক্ত শ্বশুর। এ সময় বাড়ির সমস্ত দরজা ও জানালা বন্ধ করে দেয় নাসিমের স্ত্রী ও শাশুড়ি। গভীর ঘুমেই শ্বাসরোধ হয়ে লুটিয়ে পড়েন নাসিম। অভিযোগ, রাতেই খুন করে দেহ লোপাটের চেষ্টা করেছিল শ্বশুরবাড়ির লোকরা। এলাকাবাসী গভীর রাতে বস্তা করে কিছু নিয়ে যেতে দেখে সন্দেহ করে। রাস্তা আটকে বস্তা খুলতেই মেলে নাসিমের নিথর দেহ। এরপরেই পুলিশে খবর দেওয়া হয়। আটক করা হয়েছে নাসিমের শ্বশুর, শাশুড়ি ও স্ত্রীকে। সূত্র: ইন্টারনেট


মন্তব্য