kalerkantho


পাঁচ তারকা হোটেলে থাকার অভ্যাস ত্যাগ করুন : মন্ত্রীদের কড়া বার্তা মোদির

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২০ আগস্ট, ২০১৭ ১৩:২৬



পাঁচ তারকা হোটেলে থাকার অভ্যাস ত্যাগ করুন : মন্ত্রীদের কড়া বার্তা মোদির

আগামী নির্বাচনের কলা-কৌশল সাজাতে শুরু করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এ নিয়ে দলীয় বৈঠকও করেছেন।

দলের অভ্যন্তরীণ বেশ কিছু বিষয় নিয়ে তিনি যথেষ্ট উদ্বিগ্ন এবং মোটেও তুষ্ট নন। সেখানে তার পেশকৃত একটি রিপোর্টে মন্ত্রীদের উদ্দেশ্যে বেশ কড়া মনোভাব দেখিয়েছেন তিনি বলে এক প্রতিবেদনে জানানো হয়।

সাম্প্রতিক কালের বেশ কয়েকটি ঘটনাকে সামনে রেখে কড়া বার্তা দেন মোদি। মন্ত্রীদের উদ্দেশ্যে তিনি জানিয়েছেন, পাঁচ তারকা হোটেলে থাকার সুবিধা ও জনগণের জন্য সরকারি পরিষেবার কোনো সুবিধা নিতে পারেন না মন্ত্রীরা। শুধু মন্ত্রীদেরই নয়, তাদের পরিবারের কোনো সদস্যও যেন এই সুবিধাগুলো থেকে বিরত থাকেন, তাও সতর্ক করে দেন তিনি।

বুধবার দলীয় বৈঠকের পর, মন্ত্রীদের উদ্দেশ্যে ওঠা নানান অভিযোগের কথা তিনি টেনে আনেন। সেখানেই দেশের নানা প্রান্তে দাঙ্গা তৈরি হওয়ার ঘটনাগুলোর সমালোচনা করেন। গোটা বিষয়টি নিয়ে তিনি যে বেশ ক্ষুব্ধ তা আচরণে প্রকাশ করেন। দলের বেশ কযেকজন মন্ত্রীর কর্মকাণ্ড নিয়ে প্রশ্ন তোলেন মোদি।

তিনি বলেন, সম্প্রতি বেশ কয়েকজন মন্ত্রী সরকারি কাজ ছাড়াই সরকারের পয়সায় পাঁচ তারকা হোটেলে থাকার অভ্যাস তৈরি করে ফেলেছেন।

তিনি তাদের উদ্দেশ্যে কড়া ভাষায় জানিয়ে দেন, সরকারি কাজের জন্য সরকারি জায়গায় থাকতে হবে। কোনো প্রকার প্রলোভনের সুযোগ এখানে দেওয়া যাবে না। এ ছাড়া, জনগণের জন্য সরকারি খাতের কোনো সুবিধা মন্ত্রী ও মন্ত্রীর পরিবার নিতে পারে না।  

দলীয় মন্ত্রীদের উদ্দেশ্যে এও জানিয়েছেন, বেশ কয়েকজন মন্ত্রীর রিপোর্টে পাবলিক সেক্টর আন্ডারটেকিং গাড়ির ব্যবহার করার রিপোর্ট রয়েছে তার কাছে। ব্যক্তিগত কারণে সেই গাড়ি কিংবা সরকারি ভাতা কোনো কিছুরই সুযোগ নেওয়া যাবে না এবং পরবর্তীকালে তিনি যে এগুলো কোনো মতেই বরদাস্ত করবেন না, তা স্পষ্ট জানিয়ে দেন ওই দিন।

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালে ভারতের সাধারণ নির্বাচন। তার আগে দুর্নীতিমুক্ত ভারত গড়ার কথা উল্লেখ করেছিলেন তিনি। সরকারের মধ্যেও সেই দুর্নীতির ছায়া দেখতে নারাজ মোদি। ফলে নির্বাচনের আগে মন্ত্রীদের সাবধান করে দলের ভাবমূর্তি ঠিক করার চেষ্টায় প্রধানমন্ত্রী।
সূত্র : এই সময়


মন্তব্য