kalerkantho


ভারতীয় কোস্ট গার্ডে যোগ হচ্ছে আরও ১৭৫ জাহাজ ১১০ এয়ারক্রাফ্ট

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৬ আগস্ট, ২০১৭ ১৪:৫৫



ভারতীয় কোস্ট গার্ডে যোগ হচ্ছে আরও ১৭৫ জাহাজ ১১০ এয়ারক্রাফ্ট

ভারতীয় কোস্টগার্ডের স্থাপনা ও কিছু নৌযান ফাইল ফটো

নিজেদের সমুদ্রসীমাকে বিদেশি শত্রুর হাত থেকে নিশ্ছিদ্র নিরাপদ রাখতে ভারত সরকার ৩২ হাজার কোটি রুপি বরাদ্দ করেছে। বুধবার নবভারতটাইমস.কম জানায়, পাঁচশালা পরিকল্পনার অংশ হিসেবে এই অর্থ বরাদ্দের ঘোষণা দিয়েছে মোদি সরকার।

মূলত কোস্ট গার্ডকে শক্তিশালীকরণে এই অর্থ ব্যয় হবে।

পত্রিকাটি জানায়, 'নিষ্পত্তিমূলক পাঁচশালা অ্যাকশন প্রোগামের' অংশ হিসেবে ভারতীয় কোস্ট গার্ডের জন্য ৩১ হাজার ৭৭৮ কোটি রুপি বরাদ্দ হয়েছে ভারতীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীন সেনা, নৌ ও বিমানবাহিনীর পরের স্তরে থাকা এই বাহিনীর জন্য।  প্রসঙ্গত, ২০০৮ সালের ২৬ নভেম্বর মুম্বাই হামলার ঘটনার পর থেকে দেশটিতে কোস্ট গার্ড শক্তিশালীকরণের গুরুত্ব ব্যাপকভাবে অনুভূত হতে থাকে।  

সমুদ্রসীমাকে নিরাপদ করার এই পরিকল্পনায় কোস্ট গার্ড টহল নৌযান, হেলিকপ্টার, প্লেনসহ অন্যান্য সামরিক সরঞ্জামে নিজেদের সমৃদ্ধ করবে। প্রতিরক্ষাসচিব সঞ্জয় মিত্রর নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত এক বৈঠকে চলতি মাসের শুরুতে এই অর্থ মঞ্জুরির অনুমোদন দেয় দিল্লি সরকার।

ভারতীয় পত্রিকাটি জানায়, এই পরিকল্পনার লক্ষ্য হচ্ছে ২০২২ সালের মধ্যে অন্যান্য সরঞ্জামের সঙ্গে কোস্ট গার্ডে ১৭৫টি জাহাজ ও ১১০টি এয়ারক্রাফ্ট অন্তর্ভুক্ত করা যাতে শুধু উপকূল সুরক্ষায় নিজেদের দুর্বলতা দূরই হবে না, প্রতিরক্ষা ব্যবস্থাও হবে নিশ্চিদ্র।

৭৭১৬ কিলোমিটার বিস্তৃত ভারতীয় উপকূলভূমির পাহারায় কোস্ট গার্ডের ক্ষমতা বর্তমানে খুবই অপ্রতুল। নিজেদের সমুদ্রসীমায় থাকা দ্বীপসমূহ, সামুদ্রিক ও খনিজ সম্পদ, সেনা স্থাপনার প্রতিরক্ষা এবং জলদস্যু ও চোরাচালানরোধে তাদের হাতে এ মুহূর্তে আছে মাত্র ৬০টি জাহাজ, ১৮টি এয়ারক্রাফ্ট, আর ৫২টি ছোট ইন্টারসেপ্টর বোট। আর আকাশ প্রতিরক্ষায় আছে ৩৯টি টোহি এয়ারক্রাফ্ট, ১৯টি চেতক হেলিকপ্টার এবং ৪টি অ্যাডভান্সড ধ্রুব হেলিকপ্টার।


মন্তব্য