kalerkantho


ভারতে বাংলাদেশি কিশোরীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৯ মার্চ, ২০১৭ ২৩:০৫



ভারতে বাংলাদেশি কিশোরীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ

বাংলাদেশি এক কিশোরীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে ভারতের আমেদাবাদে। অভিযোগ, ১৪ জন মিলে ওই কিশোরীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ করে। তারপর একটি বাস টার্মিনালের কাছে কিশোরীটিকে ফেলে দিয়ে যায় অভিযুক্তরা। জুনাগড়ের মাঙ্গরোল টাউনের বাস টার্মিনালের কাছে ওই কিশোরীকে কাঁদতে দেখে এগিয়ে যান স্থানীয় বাসিন্দারা। কিন্তু ভাষার সমস্যার জন্য তারা ওই কিশোরীর বক্তব্য বুঝতে না পেরে পুলিশের কাছে নিয়ে যান।

কিশোরীর কাছ থেকে মাঙ্গরোল পুলিশের কর্মকর্তারা জানতে পারেন, আমেদাবাদ ও মাঙ্গরোলে একাধিকবার ওই কিশোরীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে গত বৃহস্পতিবার। ওই কিশোরীর কাছ থেকে অভিযোগ পেয়ে শনিবার এই সংঘবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনার তদন্তে নেমেছে পুলিশ। কিশোরী পুলিশকে জানিয়েছে, সে বাংলাদেশের নাগরিক। তাকে ভারতে কয়েকজন অসাধু ব্যবসায়ীর কাছে বিক্রি করা হয়েছে।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, কিশোরী জানিয়েছে, তাকে ভারতের আমেদাবাদে সাতজন ও মাঙ্গরোলে ১৪ জন ব্যক্তি সংঘবদ্ধ ধর্ষণ করেছে। নিগৃহীতার এক আত্মীয়া তাকে 'সাই' নামে এক এজেন্ট মারফত পশ্চিমবঙ্গের বনগাঁয় বিক্রি করে দেয় বলেও পুলিশকে জানিয়েছে ওই কিশোরী। আপাতত ওই কিশোরীকে জুনাগড়ের এক নারীদের হোমে পাঠানো হয়েছে। সেখানে তার জন্য একজন দোভাষী রেখেছে পুলিশ। ওই কিশোরীর কাছ থেকে আরও তথ্য পেলে তদন্তে গতি আসবে বলেও মনে করছে পুলিশ।
সূত্র : আজকাল


মন্তব্য