kalerkantho


নারীর চামড়া লাগানো হচ্ছে অস্ত্রোপচারের কাজে

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৫ মার্চ, ২০১৭ ০১:৩৭



নারীর চামড়া লাগানো হচ্ছে অস্ত্রোপচারের কাজে

নারী পাচারের এমন ভয়াবহ রূপের কথা বোধহয় জানা যায়নি আগে। নেপাল থেকে মহিলাদের পাচার করে মুম্বাইতে এনে ছাড়িয়ে নেওয়া হচ্ছে তাদের দেহের চামড়া।

তারপরে চড়া দামে সেই চামড়া বিক্রি করা হচ্ছে। যা কাজে লাগছে পুরুষাঙ্গ এবং নারীবক্ষের আকৃতি বাড়ানোর অস্ত্রোপচারে।  

নেপাল ছাড়াও বাংলাদেশ, পশ্চিমবঙ্গ, বিহার থেকে নারী পাচার করে করা হচ্ছে এই কাজ। আর এই ঘৃণ্যকাজে মূলত নিশানা করা হচ্ছে অর্থনৈতিকভাবে পিছিয়ে পড়া শ্রেণির মহিলাদেরই। দাবি একটি সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের।

বিভিন্ন জায়গা থেকে কাজের লোভ দেখিয়ে মুম্বই নিয়ে আসা হচ্ছে মহিলাদের। তারপরে তাদের মাদক খাইয়ে বা গায়ের জোরে আটকে রাখা হচ্ছে। চাহিদা মতো মূলত পিঠ ও নিতম্বের উপরের অংশ থেকে কেটে নেওয়া হচ্ছে চামড়া। সেই চামড়া লাগানো হচ্ছে অস্ত্রোপচারের কাজে।

কেটে নেওয়া চামড়া (১৩০ বর্গ সেন্টিমিটারের দাম ১৫০ ডলার) ভারতের প্যাথলজি ল্যাবে বিক্রি হচ্ছে ৫০ হাজার থেকে ১ লক্ষ টাকায়। এরপর সেটা পাঠানো হচ্ছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কোনও গবেষণাগারে। যেখানে কৃত্রিম চামড়া ও কোষ তৈরি করা হয় কসমেটিক সার্জারির জন্য।  

বিষয়টি নিয়ে নড়েচড়ে বসেছে নেপাল সরকার। সেদেশের মহিলা, শিশু ও সমাজকল্যাণমন্ত্রী কুমার খাদকা একটি বলেছেন, রিপোর্টের কথা জানতে পেরে চমকে গেছি। টাকার লোভ দেখিয়ে নারী পাচার, কিডনি পাচার, যৌন নির্যাতনের কথা অনেক সময় শোনা যায়। কিন্তু, চামড়া পাচারের কথা আগে শোনা যায়নি। আমরা যথাযথ ব্যবস্থা নেব।


মন্তব্য