kalerkantho


স্ত্রীকে বেহুশ করে বন্ধুকে দিয়ে শ্লীলতাহানি

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৪ মার্চ, ২০১৭ ১৮:২১



স্ত্রীকে বেহুশ করে বন্ধুকে দিয়ে শ্লীলতাহানি

বন্ধুকে দিয়ে স্ত্রীর শ্লীলতাহানি করানোর অভিযোগে হায়দরাবাদে গ্রেপ্তার হলেন অস্ট্রেলিয়া নিবাসী এক ভারতীয় যুবক এবং তাঁর মা। গত কাল সোমবার নির্যাতিতার অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযুক্তদের গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

বয়ানে বছর একুশের ওই যুবতী জানিয়েছেন, ২০১৬-য় মহম্মদ সেলিমুদ্দিনের সঙ্গে তাঁর বিয়ে হয়। কিছু দিন পর উচ্চশিক্ষার জন্য অস্ট্রেলিয়া চলে যান সেলিম। এর পর থেকেই শুরু হয় ‘অস্বাভাবিকতা’। ফোনে কথা বলার সময় বা ভিডিয়ো চ্যাট করার সময় সেলিম তাঁকে বারবার নগ্ন হতে বলত। নগ্ন ভিডিয়ো তুলে তাঁকে পাঠাতে বলত। বাধ্য হয়ে সে সব করতে হত নির্যাতিতাকে।

পরে জানা যায়, সেই ছবি এবং ভিডিয়ো সেলিম তার বন্ধুদের দেখাত। তেমনই এক বন্ধু ছিল চাঁদ। গত ফেব্রুয়ারি মাসে দেশে ফেরে সেলিম।

সে সময় চাঁদের সঙ্গে দেখা হয় তাঁর। হাফিজ বাবানগর এলাকায় বাড়ি তার। এর মধ্যে বেশ কিছু দিন ধরে ‘অ্যানাল সেক্সের’ চাপ দেয় সেলিম। এক রাতে ঘুমের ওষুধ খাইয়ে যুবতীকে প্রায় অচৈতন্য করে চাঁদ-কে নিয়ে ঘরে ঢোকে সেলিম। চেতনা সম্পূর্ণ হারানোর আগে তিনি চাঁদ-কে দেখে চিনতে পারেন। পরে চাঁদ তাঁকে ধর্ষণ করে। পর দিন সকালে সমস্ত ব্যাপার বুঝতে পারে সে। দেরি না করে কাঞ্চনবাগ থানায় গিয়ে স্বামীর বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন তিনি। তার ভিত্তিতেই অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে মামলা রুজু করা হয়েছে।

- এই সময়


মন্তব্য