kalerkantho


যৌতুকের জন্য অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূকে খুন, স্বামীসহ গ্রেপ্তার ৪

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৪ মার্চ, ২০১৭ ০০:১০



যৌতুকের জন্য অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূকে খুন, স্বামীসহ গ্রেপ্তার ৪

অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূকে শ্বাসরোধ করে খুন করার অভিযোগ শ্বশুরবাড়ির বিরুদ্ধে। এই ঘটনাটি ঘটেছে বরানগর থানা এলাকার ন’পাড়ার আমবাগান এলাকায়।

নিহতের নাম সোনিয়া পাল (১৭)। যৌতুকের জন্য গৃহবধূকে হত্যা করার অভিযোগে গ্রেপ্তার করা হয়েছে তার স্বামী সোমনাথ পাল, শ্বশুর রতন পাল, শাশুড়ি লক্ষ্মী পাল এবং সোমনাথের ফুফা দিলীপ মিত্রকে। সোনিয়ার দেবর তন্ময় পাল পলাতক।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ২০১৬-র মে মাসে প্রেম করে সোমনাথকে বিয়ে করেছিল সোনিয়া। সোনিয়ার বাবা রমেশ সামন্ত প্যান্ডেলের কাজ করেন। শ্বশুর রতন পাল ভ্যানচালক। আর সোমনাথের আমবাগান এলাকায় একটি মাংসের দোকান আছে। রমেশবাবুর অভিযোগ, বিয়ের পর থেকেই পণের জন্য তাঁর মেয়ের উপর অকথ্য অত্যাচার করা হত। সোনিয়ার শ্বশুরবাড়ির সাম্প্রতিক চাহিদা ছিল একটি খাট ও আংটি।

রমেশবাবু আশ্বাস দিয়েছিলেন পুজার সময় কাজ বেশি হলে তা দেবেন। কিন্তু তাতে সন্তুষ্ট ছিল না সোমনাথরা। রবিবার রাতেই ফোন করে সোনিয়া বাপের বাড়ি চলে আসতে চায়। মেয়েকে নিতে এসে তিনি শুনতে পান তাঁর মৃত্যুর খবর।

রমেশ বাবুর অভিযোগ, বালিশ চাপা দিয়ে শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়েছে তাঁর মেয়েকে। এদিকে সোনিয়ার মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়তেই স্থানীয় বাসিন্দারা সোমনাথের মাংসের দোকান ভেঙে দেন। সোমনাথ ও তার পরিবারের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ করেন। পরে পুলিশের হাতে তুলে দেয়া হয় অভিযুক্তদের। সোনিয়ার মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। নিহত গৃহবধূ পাঁচ মাসের অন্তঃসত্ত্বা ছিল সোনিয়া।

সূত্র: আজকাল


মন্তব্য