kalerkantho


ভাতের থালা থেকে তুলে মেয়েকে খুন করে বাবার আত্মহত্যা

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৬ মার্চ, ২০১৭ ২৩:২৩



ভাতের থালা থেকে তুলে মেয়েকে খুন করে বাবার আত্মহত্যা

ভাতের থালা থেকে টেনে তুলে মেয়েকে কুপিয়ে খুন করে আত্মহত্যা করলেন বাবা। সোমবার ঘটনাটি ঘটেছে শিলিগুড়ির জাদুভিটা এলাকায়৷ রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার হয়েছে সোমা হাঁসদার (১২) মৃতদেহ। ঘরেই ঝুলন্ত অবস্থায় মিলেছে সোমার বাবা শুকরা হাঁসদার মৃতদেহ।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, শুকরা হাঁসদার মানসিক অবস্থা ঠিক ছিল না৷ প্রায়শই বাড়িতে উৎপাত করত সে৷ সোমবার সকালেই একবার শুকরা হামলা করেছিল নিজের স্ত্রীর উপর৷ প্রাণভয়ে পড়শির বাড়িতে আশ্রয় নিয়েছিলেন তিনি৷ ভেবেছিলেন ছেলে ও মেয়ে ফিরলে তারপর ঘরে ফিরবেন৷ কিন্তু মায়ের অজান্তেই স্কুল থেকে আগে বাড়ি ফিরে আসে পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রী সোমা৷ রান্নাঘরে গিয়ে খাবার জন্য ভাত নিয়ে ছিল সে৷ ভাতের থালা থেকে টেনে তুলেই তাকে কোদাল দিয়ে কোপাতে থাকে শুকরা৷ মেয়েকে কুপিয়ে খুন করার পর ঘরে গিয়ে স্ত্রীর কাপড় দিয়ে ফাঁস লাগিয়ে নিজেও আত্মহত্যা করে৷

ঘটনাটি সবার আগে দেখতে পায় সোমার বড় ভাই৷ বাবা ও বোনের মৃতদেহ দেখে চিৎকার করে ওঠে সে৷ তার চিৎকারেই ছুটে আসেন প্রতিবেশীরা৷ খবর দেওয়া হয় পুলিশে৷ পুলিশ এসে মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠায়৷

এদিকে সোমবারই শিলিগুড়ির ৪০ নম্বর ওয়ার্ডে হাত বাঁধা অবস্থায় উদ্ধার হয় মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীর মৃতদেহ৷ মৃতের নাম অঙ্কিতা ঘোষ (১৭)।

সূত্র: সংবাদ প্রতিদিন


মন্তব্য