kalerkantho


ফাঁকা ট্রেনের কামরায় একা তরুণী! এমন সময় ...

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৫ মার্চ, ২০১৭ ২০:১৯



ফাঁকা ট্রেনের কামরায় একা তরুণী! এমন সময় ...

মুখে যতই বলুন না কেন, ভূতে ভয় পান না, ভূতুড়ে পরিবেশে পড়লে বুক কেঁপে ওঠে না, এমন মানুষ বিরল। ভূতের ভয় যে মানুষকে কতখানি সন্ত্রস্ত করে তুলতে পারে, সেই বিষয়টিই উদ্ঘাটিত হয়েছে সম্প্রতি ভাইরাল হওয়া একটি প্র্যাঙ্ক ভিডিও-তে।

পাওয়েল লোডজিউস্কির ইউটিউব চ্যানেলে আপলোড হওয়া এই ভিডিওতে দেখা গিয়েছে, রাত্রির ফাঁকা মেট্রোরেলের কামরায় কী ভাবে জোম্বি বা পচাগলা মাংস সম্পন্ন প্রেতেদের কবলে পড়ে নাস্তানাবুদ হচ্ছেন সাধারণ মানুষ।  

ব্রাজিলের সিয়েরা শহরের একটি প্র্যাঙ্ক ভিডিও নির্মাণকারী গোষ্ঠী আয়োজন করেছিল মানুষকে বোকা বানানোর এই অনুষ্ঠানের। প্র্যাঙ্কের উপযুক্ত ক্ষেত্র হিসেবে বেছে নেওয়া হয়েছিল মধ্যরাত্রের মেট্রোর কামরা। রাত্রে এমনিই কমে যায় মেট্রোয় যাত্রীর সংখ্যা। পরিস্থিতি এমন দাঁড়ায় যে, কোনও কোনও কামরায় এক জন বা দু’জনের বেশি যাত্রীই থাকেন না। ভূতের ভয় দেখানোর জন্যে এ রকম নির্জন কামরাই যে আদর্শ, তা বুঝে গিয়েছিলেন প্র্যাঙ্ক নির্মাতারাও। মেট্রো কর্তৃপক্ষের সঙ্গে হাত মিলিয়ে নিজেদের দলের কিছু সদস্যকে তাঁরা জোম্বির চেহারায় সজ্জিত করে স্ট‌েশনে এবং ট্রেনের কামরায় দাঁড় করিয়ে দেন। তার পরেই শুরু যাত্রীদের মাথায় টুপি পরানোর প্রক্রিয়া।

কামরায় একজন কি দু’জন যাত্রীকে নিয়ে যাত্রা শুরু করে মেট্রোরেল।

ট্রেন কিছু দূর এগনোর পরেই আচমকা নিভে যায় কামরার আলো। আবার জ্বলেও ওঠে অবশ্য। এতেই যথেষ্ট বিভ্রান্ত হয়ে পড়েন যাত্রীরা। পরে যখন স্টেশন এল, তখনও যাত্রীরা দেখলেন, নিয়মমাফিক খুলছে না ট্রেনের দরজা। ভীত যাত্রীরা চিৎকার করে দরজা ধাক্কাতে শুরু করলেই ট্রেনের কাচের জানলায় ভেসে উঠতে থাকে কাদের সব বীভৎস মুখ। কারোর মুখের মাংস গলে পড়ছে, কারো বা কপালে রয়েছে একটি বিশ্রী ক্ষতস্থান। আতঙ্কে চিৎকার করে ওঠেন যাত্রীরা। এমন সময়ে তাঁদের আরও সন্ত্রস্ত করে ট্রেনের কামরার ভিতরেই হামাগুড়ি দিতে দিতে ঢুকে পড়ে কোনও জোম্বি। আতঙ্কে তখন প্রায় সংজ্ঞাহীন হওয়ার উপক্রম যাত্রীদের।  

পরে অবশ্য সকলেই বুঝতে পেরেছেন যে, সবটাই ছিল প্র্যাঙ্কের অন্তর্গত। সেই বুঝে তাঁরা মজাও পেয়েছেন যথেষ্ট। তবে তাঁদের ভয় পাওয়ার মুহূর্তগুলো ক্যামেরাবন্দি হয়ে ভাইরাল হয়ে গিয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।  

দেখুন ভিডিওটি :

- সূত্র : এবেলা


মন্তব্য