kalerkantho


বালতির পানিতে পড়ে প্রাণ গেল এক বছরের শিশুর

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৩ মার্চ, ২০১৭ ১১:১৪



বালতির পানিতে পড়ে প্রাণ গেল এক বছরের শিশুর

দিল্লির রোহিনীতে ওয়াশিং মেশিনে ঢুকে পড়ে তিন বছরের দুই যমজ শিশুর মৃত্যুর পর একইরকম আরো একটি দুর্ঘটনা ঘটেছে। এ দুর্ঘটনা বৃহস্পতিবার ভারতের উত্তরপ্রদেশের গাজিয়াবাদের লোনিতে ঘটেছে।

যেখানে পানিভর্তি বালতিতে পড়ে মারা গেল এক বছরের শিশু। মৃত শিশুর নাম আজম। জানা গেছে, সকালে অশোক বিহার কলোনিতে বাড়ির মধ্যেই ছিল ছোট্ট আজম। নিজে নিজেই সিঁড়িতে হামাগুড়ি দিয়ে ছাদে যায়। যেখানে তার মা ফাতিমা একটি পানিভর্তি বালতি রেখেছিলেন। বালতটিতে ১০ থেকে ১২ লিটার পানি ভরা ছিল। ছাদে রাখা বালতিতে উঁকি মারতে গিয়েই উল্টো হয়ে তার ভেতরে পড়ে যায় আজম। এদিকে শিশুটির মা তখন ঘরের কাজে ব্যস্ত থাকায় খেয়ালও করেননি। ফলে বালতির পনিতে ডুবে যায় শিশুটি। ১৫ মিনিট পরে ছাদে গিয়ে ছেলের মৃতদেহ দেখতে পান ফতিমা।

আজমের বাবা মুশারফ জানান, ছেলে ওর মায়ের সঙ্গে একাই বাড়িতে ছিল। ওর চার ভাই-বোন তখন পড়তে গিয়েছিল। ফাতিমা ঘরের কাজকের্ম ব্যস্ত ছিল। আজম কোনোভাবে সিঁড়ি দিয়ে ছাদে ওঠে। এরপরই বালতির ভেতরে কী আছে দেখতে গিয়েই হয়তো পড়ে যায়। ১৫ মিনিট পর তার স্ত্রী যখন ছেলেকে খুঁজতে উপরে ওঠে, তখনই উল্টো অবস্থায় ছেলের মৃতদেহ দেখতে পায়।

ফাতিমার কান্না শুনেই প্রতিবেশীরা জড়ো হয়ে যায়। তারাই শিশুটিকে নিয়ে পাশের একটি বেসরকারি হাসপাতালে যায়। কিন্তু আজমকে বাঁচানো সম্ভব হয়নি। হাসপাতালের এক চিকিৎসক জানান, তারা শিশুটিকে বাঁচানোর আপ্রাণ চেষ্টা করেও সফল হতে পারিনি। এদিকে পুলিশের তরফ থেকে বলা হয়েছে, গোটা ঘটনাটি নিছকই দুর্ঘটনা। এর পেছনে অন্য কোনো কারণ নেই।

 


মন্তব্য