kalerkantho


জীবনসঙ্গীর পরোয়া না করে নিজেকেই বিয়ে, নিজের সঙ্গেই মধুচন্দ্রিমা!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২ মার্চ, ২০১৭ ০০:৩৬



জীবনসঙ্গীর পরোয়া না করে নিজেকেই বিয়ে, নিজের সঙ্গেই মধুচন্দ্রিমা!

বয়স হয়ে গেছিল ৩৮ বছর। আমেরিকার হিউস্টন-এর বাসিন্দা ইয়াসমিন এলিবাই ঠিক করে ফেলেছিলেন‚ আর ২ বছরের মধ্যে প্রেমিক জীবনে না এলে নিজেকেই বিয়ে করবেন তিনি।

সেই আশঙ্কাই সত্যি হল বাস্তবে। ৩৮ থেকে ৪০-এ পৌঁছেও প্রেমিক এল না ইয়াসমিনের জীবনে। শেষে নিজেকে দেওয়া কথা রাখলেন এই যুবতী। বছর দুয়েক আগে বিয়ে করলেন নিজেকেই। বিয়ে হয় হিউস্টনের Museum of African American Culture-এ। অনুষ্ঠানে হাজির ছিলেন ইয়াসমিনের পরিজন এবং বন্ধুবান্ধবরা। তাঁদের অভিনন্দন পেয়ে উচ্ছ্বসিত ইয়াসমিন।

নিজেকে বিয়ে করা আইন বহির্ভূত। তাই‚ বিয়ের অনুষ্ঠানে ইয়াসমিনের বাহু জড়িয়ে হাঁটেন তাঁর মা।

কিন্তু বিয়ের পাত্র বা পাত্রী‚ একসঙ্গে দুটি ভূমিকাতেই ছিলেন ইয়াসমিন। কম্বোডিয়া‚ লাওস এবং দুবাইয়ে নিজের সঙ্গে নিজেই মধুচন্দ্রিমা করেন ৩৮ বছরের ইয়াসমিন এলিবাই।

একইভাবে নিজেই নিজেকে বিয়ে করেন সোফি ট্যানারও। ইংল্যান্ডের ব্রাইটনের বাসিন্দা সোফির বয়স হয়েছিল ৩৭ বছর। কিন্তু খুঁজে পাননি মনের মানুষ। শেষে গত বছর এই লেখিকা সিদ্ধান্ত নেন‚ তিনি নিজেই নিজের জীবনসঙ্গিনী হবেন। কিন্তু গির্জায় বিয়ের সব রীতি পালন করেন তিনি। পুষ্পস্তবক ছুড়ে দেওয়া‚ নাচগান‚ কেক কাটা‚ সবই হয়। তাঁর বাহু ধরে অল্টার অবধি নিয়ে যান বাবা। শেষ অবধি নিজেই নিজেকে আংটি পরিয়ে বিয়ের অনুষ্ঠান সম্পন্ন করেন ‘ সিঙ্গল ‘ সোফি।

এঁরা দুজন প্রতীকী মাত্র। ইউরোপ‚ আমেরিকায় এখন মাঝে মাঝেই শোনা যাচ্ছে মহিলারা নিজেরা নিজেদেরকেই বিয়ে করছেন।

- ইন্টারনেট


মন্তব্য