kalerkantho


মা হলেন কিশোরী, অতঃপর ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেপ্তার ধর্মযাজক

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১ মার্চ, ২০১৭ ১৯:০২



মা হলেন কিশোরী, অতঃপর ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেপ্তার ধর্মযাজক

ভারতে এক ক্যাথোলিক ধর্মযাজককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ১৬ বছর বয়সী কিশোরীকে ধর্ষণের দায়ে গ্রেপ্তার হলেন তিনি। তারপরও ঘটনাটি সঙ্গে সঙ্গে প্রকাশ পায়নি। ধর্ষণের পর কিশোরী গর্ভবতী হয়ে পড়েন। সন্তান জন্মদানের পর ঘটনা সম্প্রতি জনসমক্ষে আসলো।

ফাদার রবিন ভাড়াক্কুমচেরিকে গত সোমবার আটক করা হয়েছে। ওই কিশোরীর সন্তান জন্মদানে সবাই হচকিত হয়ে পড়েন। অবশেষে মেয়েটি জানান, ভারতের দক্ষিণের কেরালায় চার্চ পরিচালিত এক স্কুলে তাকে ধর্ষণ করা হয়।

কিশোরী যে শহরে থাকেন সেখানকার এক জ্যেষ্ঠ পুলিশ কর্মকর্তা প্রাজিস থোট্টাথিল বলেন, সন্তানের জন্মের পর কিশোরী ওই ধর্মযাজকের বিরুদ্ধে অভিযোগ তোলে। দুই সপ্তাহ অভিযানের পর খোঁজ মেলে অপরাধীর।

কিশোরী এবং তার পরিবারও গর্ভধারণের বিষয়ে জানতেন না।

তবে পেটে ব্যথার কথা বলারর পর তাকে নিয়ে হাসপাতালে যান তার পরিবারের সদস্যরা। সেই ফেব্রুয়ারির ৭ তারিখে হাসপাতালে নেওয়া হয় তাকে।

শিশু অধিকার বিষয়কক চ্যারিটি পুলিশকে জানায়, সন্তানকে জন্ম দেওয়া হয় গোপনে। পরে তদন্ত শুরু করে পুলিশ। এতে ওই ধর্মযাজকের বিরুদ্ধে তোলা অভিযোগের সত্যতা প্রমাণিত হয়। ইতিমধ্যে আগত শিশুকে একটি অনাথ আশ্রমে দিয়ে দেওয়া হয়েছে।

এখন কিশোরী মা এবং তার সন্তান উভয়ই রাষ্ট্র পরিচালিত ওয়েলফেয়ার হোম এর অধীনে রয়েছে।

ভারতের স্ট্রিনজেন্ট চাইল্ড প্রোটেকশন আইনের অধীনে ১৮ বছরের কম বয়সী কোনো মেয়ের অসম্মতিতে বা সম্মতিতে যৌনতাকে ধর্ষণ বলে বিবেচনা করা হবে।

এক সরকারি পরিসংখ্যানে বলা হয়, ভারতে ২০১৫ সালে প্রায় ২০ হাজার কিশোরী ধর্ষণ ও যৌন নির্যাতনের শিকার হয়েছে। সূত্র: এমিরাটস

 


মন্তব্য