kalerkantho


কাশ্মীরে এবার ব্যবহার হবে অভিনব পেলেটগান

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০৫:৪৯



কাশ্মীরে এবার ব্যবহার হবে অভিনব পেলেটগান

পেলেটগান বা ছররা বন্দুক নিষিদ্ধ হচ্ছে না জম্মু-কাশ্মীরে। বরং নতুন ধরনের পেলেটগান আসছে, জানালেন সিআরপিএফ-এর ডিজি কে দুর্গা প্রসাদ। বিক্ষোভের নামে নিরাপত্তা বাহিনীকে আক্রমণ করা হলে বাহিনী আবার পেলেট গানই ব্যবহার করবে বলে জানিয়েছেন ডিজি। তবে পেলেটগানের আঘাতে যাতে কারও চোখ-মুখ ক্ষতিগ্রস্ত না হয়, সে কথা মাথায় রেখেই পেলেট গানের চরিত্র বদল করা হচ্ছে বলে তিনি জানিয়েছেন।

সিআরপিএফ-এর এই ডিজি মঙ্গলবারই অবসর নিচ্ছেন। তার আগে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়েছিলেন তিনি। সেই আলাপচারিতাতেই কে দুর্গা প্রসাদ জানান, পেলেটগানের নলের মুখে একটি ডিফ্লেক্টর লাগানো হচ্ছে। এই ডিফ্লেক্টর থাকায় বন্দুক থেকে ছুটে যাওয়া ছররার অভিমুখ যতটা সম্ভব নীচের দিকে থাকবে। তাতে চোখে বা মুখে আঘাত লাগবে না।

জম্মু-কাশ্মীরে আধা-সেনাকে লক্ষ্য করে পাথর ছোড়ার ঘটনা গত বছরে উদ্বেগজনক অবস্থায় পৌঁছেছিল। উপত্যকার কোনও না কোনও অঞ্চলে প্রায় প্রতিদিনই বিক্ষোভ হচ্ছিল আর উত্তেজিত জনতা পাথর ছুড়ছিল।

সেই বিক্ষুদ্ধ জমায়েতকে ছত্রভঙ্গ করতে পেলেটগান তুলে দেওয়া হয় বাহিনীর হাতে। কিন্তু পেলেটগান থেকে বেরনো ঝাঁকে ঝাঁকে ছররার অভিমুখ অনিয়ন্ত্রিত থাকায় বহু বিক্ষোভকারীর চোখ ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছিল। তা নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকার ঘরে-বাইরে সমালোচনার মুখে পড়ে।

পেলেট গানের ব্যবহার বন্ধ করে দেওয়ার কথাই ভাবতে শুরু করেছিল সরকার। কিন্তু সে ভাবনা যে বাস্তবায়িত হচ্ছে না, সিআরপিএফ-এর ডিজির মন্তব্যে তা স্পষ্ট হয়ে গিয়েছে। তিনি স্পষ্টই জানিয়েছেন যে হিংসাত্মক জমায়েতকে ছত্রভঙ্গ করতে পেলেটগানই সরকার ব্যবহার করবে। কিন্তু ছররা যাতে চোখে-মুখে আঘাত না করে সে ব্যবস্থা করা হবে। ডিফ্লেক্টর লাগানো পেলেটগান থেকে নির্গত ছররা কারও কোমরের উপরে আঘাত করবে না বলে সিআরপিএফ-এর ডিজি জানিয়েছেন।


মন্তব্য