kalerkantho


কন্যাসন্তান জন্ম দেওয়ায় স্ত্রীকে পুড়িয়ে মারল স্বামী

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ২১:১৮



কন্যাসন্তান জন্ম দেওয়ায় স্ত্রীকে পুড়িয়ে মারল স্বামী

কন্যাসন্তানের জন্ম দিয়েছিল স্ত্রী। তাই অত্যাচার চালানোর পাশাপাশি তাকে পুড়িয়ে মারার অভিযোগ উঠল এক যুবকের বিরুদ্ধে।

অভিযুক্ত স্বামী ও শাশুড়িকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের বর্ধমানের বিসি রোডে।  
জানা গেছে, বিসি রোডের বাসিন্দা তড়িৎ দাস একটি স্টেশনারি দোকান চালায়। দোলন দাস (২৮) তার দ্বিতীয় পক্ষের স্ত্রী। দোলনের মা অন্নপূর্ণা নন্দী ও দাদা শান্তনু নন্দীর অভিযোগ, বছর তিনেক আগে প্রচুর টাকা পণ দিয়ে তারা দোলনের বিয়ে দিয়েছিলেন। কিন্তু, তাতে সাধ মেটেনি তড়িতের। প্রায়ই টাকার দাবি করত সে। টাকা আনতে স্ত্রীকে জোর করে বাপের বাড়ি পাঠিয়ে দিত। আর টাকা না আনলেই চলত মারধর। অত্যাচারে অতিষ্ট হয়ে তিনি অনেকবার বাপের বাড়ি চলে আসতেন। পরে মা আবার মেয়েকে বুঝিয়ে শ্বশুরবাড়ি পাঠিয়ে দিতেন। এরপর বছর দেড়েক আগে এক কন্যাসন্তানের জন্ম দেন দোলন। অভিযোগ, তারপর থেকে বাড়তে থাকে অত্যাচার। আজ গায়ে আগুন লাগিয়ে দোলনকে খুন করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছে তার পরিবার।
পুলিশ সূত্রে আরও জানা গেছে, একই ঘটনা ঘটেছিল তড়িতের প্রথম স্ত্রীর সঙ্গেও। শক্তিগড়ের একটি মেয়ের সঙ্গে দেখশোনা করে বিয়ে হয়েছিল তড়িত দাসের। কিন্তু সেখানেও প্রথমে টাকার দাবিতে চলত অত্যাচার। পরে কন্যাসন্তান জন্ম দেওয়ায় একদিন তাকে শ্বাসরোধ করে খুন করা হয় বলে অভিযোগ ওঠে তড়িত ও তার মা-বাবার বিরুদ্ধে। জানা যায়, এই অভিযোগে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়েছিল। জেল, জরিমানা পর্যন্ত হয়।


মন্তব্য