kalerkantho


যুক্তরাষ্ট্রে গ্রেপ্তার আতঙ্কে অভিবাসীরা

নিউ ইয়র্ক প্রতিনিধি    

২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১১:০৪



যুক্তরাষ্ট্রে গ্রেপ্তার আতঙ্কে অভিবাসীরা

অভিবাসীদের দেশেই পালিয়ে বেড়াচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রের অভিবাসীরা। যেকোনো সময় গ্রেপ্তারের শিকার হতে পারেন- এ আশঙ্কায় দিশেহারা হয়ে অভিবাসীরা পালিয়ে বেড়াচ্ছেন এক অঙ্গরাজ্য থেকে অন্য অঙ্গরাজ্যে। গ্রেপ্তার আতঙ্কে তারা এখন গির্জা কিংবা কোনো কিছু কিনতেও দোকানে যেতেও ভয় পাচ্ছেন। চিকিৎসকের সঙ্গে নির্ধারিত সময়ে দেখা করতেও পারছেন না।

শিক্ষার্থীরা স্কুল-কলেজে যাওয়া বন্ধ করে দিয়েছে। যারা গাড়ি চালাতেন, তারাও আর রাস্তায় নামছেন না। গাড়ির কোনো ত্রুটিও তাদের ইমিগ্রেশন অ্যান্ড কাস্টমস এনফোর্সমেন্ট বিভাগে (আইসিই) ঠেলে দিতে পারে এবং জেলই হতে পারে শেষ গন্তব্য। এদিকে, সাত মুসলিম দেশের নাগরিকদের যুক্তরাষ্ট্রে ভ্রমণে ট্রাম্পের নিষেধাজ্ঞা আদালতে আটকে যাওয়ার পরবর্তী ২৭ ঘণ্টায় সারা দেশে ৭৪৬ বিদেশিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল বলে জানিয়েছে কেন্দ্রীয় বা ফেডারেল সরকার।

গ্রেপ্তার আতঙ্কের কারণে অনেক অভিবাসী জড়ো হয়েছেন সেন্ট্রাল ভ্যালি ক্যালিফোর্নিয়ায়। বেঁচে থাকার ন্যূনতম অর্থ রোজগারের লক্ষ্যে সেখানকার ক্ষেত-খামারে কাজের চেষ্টা করছেন। কিন্তু শিশুরা সেখানে স্কুলে যাচ্ছে না।

স্ট্যাটেন আইল্যান্ডে আগের তুলনায় রাস্তার ওপর অভিবাসী দিনমজুরদের আনাগোনা একেবারে কমে গেছে। পশ্চিম ফোনিক্সের আইসাক স্কুল ডিস্ট্রিক্টে গত দুই সপ্তাহে অন্তত কয়েক ডজন শিশু স্কুল ছেড়ে দিয়েছে। নর্দান নিউ জার্সির হর্স কাউন্টিতে অনেক অভিবাসীই এখন হন্ডুরাসে ফিরে যাওয়ার কথা ভাবছেন।

যুক্তরাষ্ট্রে এক কোটি ২০ লাখের মতো অবৈধ অভিবাসী রয়েছেন। সব সময়ই তাদের ওপর দেশ থেকে বহিষ্কারের হুমকি ছিল। তবে তা শুধু কাগজে-কলমেই ছিল। যারা বড় ধরনের কোনো অপরাধের সঙ্গে জড়িত নয়, তারা দুই দশক ধরে যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থান করলেও ধরপাকড়ের শিকার হননি। কিন্তু বর্তমান পরিস্থিতিতে অভিবাসীদের মাঝে চরম আতঙ্ক বিরাজ করায় অভিবাসীরা এক অঙ্গরাজ্য থেকে অন্য অঙ্গরাজ্যে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন তারা।


মন্তব্য