kalerkantho


এবার ন্যামের হত্যাকাণ্ড নিয়ে মুখ খুলল উ. কোরিয়া

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০১:৪৫



এবার ন্যামের হত্যাকাণ্ড নিয়ে মুখ খুলল উ. কোরিয়া

কুয়ালালামপুর বিমানবন্দরে উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উনের সৎ ভাই কিম জং ন্যামের হত্যাকাণ্ড নিয়ে এবার মুখ খুলল উ. কোরিয়া। ন্যামের হত্যার জন্য মালয়েশিয়াকেই দায়ী করছে দেশটি।

উ. কোরিয়ার রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম কেসিএনএ-তে প্রকাশিত প্রতিবেদনে কিম জং ন্যামের নাম উহ্য রেখে এ কথা বলা হয়।
 
প্রতিবেদনে বলা হয়, মালয়েশিয়ায় উ. কোরিয়ার এক নাগরিকের মৃত্যুর জন্য দায়ী। এখন তারা লাশ হস্তান্তরের বিষয়টি নিয়ে রাজনীতি করছে। কিম জং ন্যাম ১৩ ফেব্রুয়ারি কুয়ালালামপুরে খুন হন। তার মুখে বিষপ্রয়োগ করে তাকে হত্যা করা হয়।  

এই হত্যাকাণ্ডের জন্য উ. কোরীয় দূতাবাসের কর্মকর্তা, রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন এয়ারলাইনের কর্মকর্তাসহ সাত উ. কোরীয় সন্দেহভাজনের নাম ঘোষণা করেছে মালয়েশীয় পুলিশ। একজন উ. কোরীয় ইতিমধ্যে আটক হয়েছেন।
 
গত বুধবার মালয়েশীয় পুলিশ নিশ্চিত করেছে, কুয়ালালামপুর বিমানবন্দরে ম্যাকাউয়ে যাওয়ার বিমান ধরার অপেক্ষায় থাকা ন্যামের মুখে দুই নারী বিষ ছুড়ে হত্যা করে। ওই দুই নারী পুলিশের ডিটেনশনে রয়েছে।

পুলিশ জানিয়েছে, আক্রমণটা পরিকল্পিত ছিল এবং আটক নারীরা বেশ প্রশিক্ষিত।
 
কিন্তু কেসিএনএ'র প্রতিবেদনে বলা হয়, কূটনৈতিক পাসপোর্টে একজন উ. কোরীয় নাগরিক মালয়েশিয়ায় 'হার্ট স্ট্রোকে' মারা গেছে। বিষ প্রয়োগে খুনের খবরকে মিথ্যা উল্লেখ করে বলা হয়, মালয়েশিয়া দক্ষিণ কোরিয়ার উ. কোরিয়া বিরোধী প্রচারণার অংশ হিসেবে কাজ করছে।
 
প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, কূটনৈতিক পাসপোর্টধারী ব্যক্তির ময়নাতদন্ত রাষ্ট্রের অনুমতি ছাড়া সম্পন্ন করা মানবাধিকার লঙ্ঘনের শামিল এবং নৈতিক আদর্শের বিরোধী। তার মৃত্যুর জন্য সবচেয়ে বেশি দোষী মালয়েশিয়া সরকার। এবং উ. কোরিয়ার কাছে লাশ হস্তান্তরে গড়িমসি আন্তর্জাতিক আইনের লঙ্ঘন।


মন্তব্য