kalerkantho


আগামী নির্বাচনেও অংশগ্রহণের ঘোষণা রবার্ট মুগাবের

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ২১:৫৩



আগামী নির্বাচনেও অংশগ্রহণের ঘোষণা রবার্ট মুগাবের

আফ্রিকায় সবচেয়ে দীর্ঘ সময় ক্ষমতায় থাকা জিম্বাবুয়ের প্রেসিডেন্ট রবার্ট মুগাবে ৯৩তম জন্মদিনে ২০১৮ সালের নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবেন বলে ঘোষণা দিয়েছেন। এই নিয়ে সপ্তমবারের মতো প্রেসিডেন্ট হিসেবে দেশ পরিচালনা করছেন।  

নব্বই অতিবাহিত হওয়া এই বর্ষীয়ান নেতা রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে প্রচারিত বক্তব্যে তাঁর দলের কর্মীদের প্রসঙ্গে বলেন, ‘তারা চায় আমি নির্বাচনে দাঁড়াই। ’ 

তিনি জনগণের কথা উল্লেখ করে বলেন, অধিকাংশ মানুষ মনে করে প্রেসিডেন্ট হিসেবে আমার বিকল্প নেই। ’

এই সময় তিনি যুক্তরাষ্ট্রের নতুন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রতি সমর্থন জানিয়ে বলেন, আমেরিকার জনগণের উচিত তাকে সময় দেওয়া।

রবার্ট মুগাবে ১৯২৪ সালের ২১ ফেব্রুয়ারি জন্মগ্রহণ করেন। ১৯৮০ সালে জিম্বাবুয়ে ঔপনিবেশিক শাসন থেকে স্বাধীনতা পাওয়ার পর থেকে তিনি দেশটি শাসন করে আসছেন। তাঁর দীর্ঘ শাসনকালে জিম্বাবুয়ের অর্থনৈতিক অবস্থা বিপর্যয়ে পড়েছে।

২০১৩ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে মুগাবের জয় নিয়ে অনেক বিতর্কের সৃষ্টি হয়েছিল। নির্বাচনে ব্যাপক কারচুপির অভিযোগ উঠেছিল।
জেডবিসি টিভিকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে মুগাবে বলেছিলেন, ‘আমি নির্বাচনে দাঁড়াই, সেটা তারা চায়।

দলের সব নির্বাচনে আমি অংশ নিই, সেটা তারা প্রত্যাশা করে। বেশির ভাগ মানুষ বিশ্বাস করে, আমার বিকল্প বা আমার রাজনৈতিক উত্তরাধিকার গ্রহণের মতো আর কেউ নাই। ’

ওই সাক্ষাৎকারে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রশংসা করেন মুগাবে। আমেরিকান জাতীয়তাবাদ বিষয়ে ট্রাম্পের অবস্থানকে সমর্থন জানান তিনি। এছাড়া ট্রাম্পকে সমর্থন জানাতে যুক্তরাষ্ট্রবাসীর প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

মুগাবে বলেন, ‘আমেরিকার জন্য আমেরিকা, আমেরিকাবাসীর জন্য আমেরিকা। এই বিষয়টায় আমরা একমত’, 

তবে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ট্রাম্পের জয়লাভে বিস্মিত বলে জানান মুগাবে। ডেমোক্রেটিক পার্টির প্রার্থী হিলারি ক্লিনটনকেও পছন্দ করতেন না তিনি। তার ধারণা, হিলারি প্রেসিডেন্ট হলে জিম্বাবুয়ের ওপর বিভিন্ন নিষেধাজ্ঞা আরোপ করতেন। এর আগে ২০০২ সালে মুগাবে ও তার কয়েকজন জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তার ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে যুক্তরাষ্ট্র। পরে তৎকালীন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা ওই নিষেধাজ্ঞা আরো এক বছর বাড়ায়।

প্রেসিডেন্ট মুগাবে আশা প্রকাশ করে জানান, ট্রাম্প জিম্বাবুয়ের ওপর আরোপ করা বিভিন্ন নিষেধাজ্ঞা আবার খতিয়ে দেখবেন।


মন্তব্য