kalerkantho


বেঁচে আছে শিশুটি! মর্মস্পর্শী ছবিতে অবিশ্বাস্য উদ্ধার তৎপরতা

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১৯:২৭



বেঁচে আছে শিশুটি! মর্মস্পর্শী ছবিতে অবিশ্বাস্য উদ্ধার তৎপরতা

কয়েকটি মর্মস্পর্শী ছবি প্রকাশ করলো সিরিয়া সিভিল ডিফেন্স। দামেস্কাসের প্রতিবেশী এলাকা তিশরিনে।

সেখানে ধ্বংসস্তূপের নিচে চাপা পড়েছিল ছোট্ট কন্যা শিশু আইয়া। বিস্ময়করভাবে বেঁচে গেছে সে। সাম্প্রতিক হামলায় সে যে বাড়িতে থাকতো তা বিধ্বস্ত হয়।

কংক্রিটের বর্জ্য সরিয়ে তাকে বের করে আনা হয়েছে। তার গোটা দেহ ও চুল ধুলো-ময়লায় সয়লাব ছিল। এই ধ্বংসস্তূপের নিচে খোঁজ চালায় একদল মানুষ। এখানে সিরিয়ান ফোর্স বোমা হামলা চালানোর পর আইয়ার মা তাকে খুঁজে পাচ্ছিলেন না বলে জানায় সিরিয়া সিভিল ডিফেন্স।

ছবি: কংক্রিটের ছোট ছোট আর ভারী টুকরার নিচে চাপা পড়েছে শিশুটি। এগুলো সরিয়ে তাকে বের করে আনার চেষ্টা করা হচ্ছে।

জীবিত ছিল আইয়া, কেঁদে ওঠে। উদ্ধারের পর কাছের একটি মেডিক্যাল সেন্টারে নেওয়া হয়।

 

তাকে উদ্ধারের পর আনন্দে 'আল্লাহু আকবার আল্লাহু আকবার' বলে চিৎকার করে ওঠেন সবাই। মেয়েটি কতটা আহত হয়েছে তা এখনো পরিষ্কারভাবে জানান যায়নি।

হামলার পর সেখানে উদ্ধার তৎপরতা শুরু হয়। যারা উদ্ধারকাজ চালাচ্ছিলেন তাদের কাছে আইয়াকে খুঁজে না পাওয়ার কথা জানান তার মা।

সৌভাগ্যক্রমে দলটি আইয়াকে খুঁজে পেতে সক্ষম হন। চাপা পড়া শিশুকে উদ্ধার করেই কাছের মেডিক্যাল সেন্টারে নেওয়া হয়।

জানা গেছে, সিরিয়ায় বিদ্রোহীদের দখলকৃত দামেস্কাসের উত্তরাংশ বারজেহ-তে বিমান হামলা চালানো হয়। এতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৭-এ উন্নীত হয়েছে। এর মধ্যে একজন নারী ও এক শিশু রয়েছে। এ ছাড়া প্রতিবেশী এলাকা কাবানেও বিমান হামলা চালানো হয়।

সিরিয়ান অবজারভেটরি ফর হিউম্যান রাইটস জানায়, জেনেভায় শান্তি স্থাপনে পুনরায় আলোচনার কয়েক দিন বাদেই সরকারি বাহিনী বোমা হামলা বৃদ্ধি করলো। সূত্র: দ্য সান

 


মন্তব্য