kalerkantho


একসঙ্গে থাকার জন্য বাড়ি ছাড়লেন দুই তরুণী

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ২৩:২৯



একসঙ্গে থাকার জন্য বাড়ি ছাড়লেন দুই তরুণী

স্বাধীনভাবে বেঁচে থাকার ‘‌অধিকার’‌ সকলেরই রয়েছে। সেই ‘‌অধিকার’‌–কে বাস্তবায়িত করে দেখালেন উত্তরপ্রদেশ মথুরার প্রত্যন্ত গ্রামের দুই তরুণী। মথুরার মহাবন তেহসিল জেলার দুই তরুণী একসঙ্গে থাকবেন বলে নিজেদের পরিবারকে উপেক্ষা করেই বাড়ি ছাড়লেন।

অনৌদা গ্রামের ২১ বছরের সোনিয়া বিয়ের সাত বছর পর বাপের বাড়িতে ফিরে আসেন। সোনিয়ার সঙ্গে ওই গ্রামেরই বাসিন্দা ২০ বছরের রিনার বন্ধুত্ব হয়। বন্ধুত্ব ক্রমে পরিণত হয় প্রেমে। কিন্তু তাঁরা প্রথম থেকেই জানতেন, তাঁদের এই সম্পর্ক কোনোভাবেই দুই পরিবার মেনে নেবে না। তবুও শেষবারের মত সোনিয়া ও রিনা তাঁদের পরিবারকে নিজেদের সম্পর্ক বোঝানোর চেষ্টা করেছিলেন। বিয়ে করতে চেয়েছিলেন তাঁরা।

কিন্তু দুই পরিবার তাঁদের সেই দাবি মেনে নিতে পারেননি। শেষ পর্যন্ত পুলিশের সহায়তা চান দুই তরুণী।

সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশানুযায়ী দুই তরুণীর একসঙ্গে থাকা এখন আইনসম্মত। সেই কথা মনে করিয়ে দিয়েই সোনিয়া ও রিনা পুলিশের সামনে তাঁদের পরিবারকে জানান, তাঁরা কোনো অজ্ঞাত জায়গায় চলে যাবেন। কারণ, পরিবারের কাছে থাকলে তাঁদের জীবনে বিপদ হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।

সূত্র: আজকাল


মন্তব্য