kalerkantho


ভারতে রূপান্তরিত নারীর প্রথম আইনি বিয়ে

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১৯:১৪



ভারতে রূপান্তরিত নারীর প্রথম আইনি বিয়ে

দিনটা ছিল ২০১৬ সালের ১৭ ফেব্রুয়ারি। ১৬ বছরের বন্ধুত্ব থেকে ভালোবাসা হয়ে ওঠা সম্পর্ক সমাজের বাধা-ধরা নিয়মের গণ্ডি পেরিয়ে পরিপূর্ণতা পেয়েছিল সে দিন। মিলেছিল সামাজিক স্বীকৃতি। বিয়ের বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছিলেন শ্রী ও সঞ্জয়। গোটাটাই হয়েছিল আর পাঁচটা বিয়ের মতোই। তবুও কোথায় যেন এই বিবাহ অনুষ্ঠানটি ছিল এক্বেবারে স্বতন্ত্র। আসলে শ্রীয়ের বিয়ে বলে কথা।   

শ্রীর জীবন কাহিনি যে খুব একটা সহজ নয়। রূপান্তরিত নারী শ্রী ঘটক মুহুরি ও তার স্বামী সঞ্জয় মুহুরি তাদের দুই পরিবারের মত নিয়ে বিয়ের বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছিলেন। সেই ঘটনার বয়স হয়ে গেল ১ বছর। প্রথম বিবাহ বার্ষিকীর দিন গোটা দেশে নজিরও সৃষ্টি করলেন শ্রী।

তিনিই সম্ভবত প্রথম ভারতীয় রূপান্তরিত নারী, যিনি আইনত বিয়েটা সেরে ফেললেন।

বিয়ের অনুষ্ঠানে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিল গোটা পরিবার।  সব সময় ছেলেবউয়ের পাশে দেখা যায় শ্বশুর সমীর মুহুরিকে।  রেজিস্ট্রেশনের সময় তিনিই প্রথম সাক্ষী হিসেবে সাক্ষর করলেন। বললেন, তাদের বাড়িতে বৌমা আসার পর আনন্দের জোয়ার বয়ে যাচ্ছে। শুরুতে 'কিন্তু কিন্তু' ভাব ছিল সেটাও স্বীকার করলেন তিনি। তবে তার বড় ছেলের প্রতি শ্রীর ভালোবাসা সব 'কিন্তু' দূর করে দেয়।

তার ভাষায়, "এই তো মাসকয়েক আগে আমি হাসপাতালে ভর্তি ছিলাম। তখন তো বৌমাই হাসপাতাল-বাড়ি দৌড়াদৌড়ি করে আমাকে সারিয়ে তুলল। আর ওর হাতের খাসির মাংস তো অসাধারণ। একটা দিন বাড়িতে না থাকলে বাড়িটা কেমন যেন ফাঁকা ফাঁকা লাগে। "

সূত্র: আনন্দবাজার


মন্তব্য