kalerkantho


কিম উনের ভাইয়ের মৃত্যুতে উত্তর কোরিয়ার নাগরিক আটক

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১২:৫০



কিম উনের ভাইয়ের মৃত্যুতে উত্তর কোরিয়ার নাগরিক আটক

উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উনের সৎ ভাই কিম জং ন্যামের হত্যার ঘটনায়  উত্তর কোরীয় এক নাগরিককে আটক করার কথা জানিয়েছে মালয়েশিয়া। গত সোমবার কুয়ালালামপুর বিমানবন্দরে বিষপ্রয়োগে ন্যাম নিহত হওয়ার পর এই প্রথম কোনো উত্তর কোরীয় নাগরিককে আটক করা হলো। আটক ব্যক্তির নাম রি জং চল (৪৬) বলে জানিয়েছে মালয়েশিয়ার পুলিশ। এর আগে চাঞ্চল্যকর এই হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় মালয়েশিয়ার এক পুরুষ, ইন্দোনেশিয়া ও ভিয়েতনামের দুই নারীকে আটক করেছিল মালয় পুলিশ। নিহত কিম জং ন্যাম উত্তর কোরিয়ার প্রয়াত নেতা কিম জং ইলের বড় ছেলে ছিলেন।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, কুয়ালালামপুর বিমানবন্দরে কিম জং ন্যামের মুখমণ্ডলে বিষ ছড়িয়ে দেওয়া হয়েছিল বলে প্রমাণ পেয়েছে পুলিশ। ওই সময় তিনি কুয়ালালামপুর থেকে ম্যাকাও যাচ্ছিলেন। হত্যাকাণ্ডের পর মালয়েশিয়ার পুলিশ প্রথমে জানায়, বিমানবন্দরে এক ব্যক্তির ওপর দুই নারী হামলা করে। পরে তার শরীরে বিষাক্ত সুই প্রয়োগ করে। হাসপাতালে নেওয়ার পথে তিনি মারা যান। আহত অবস্থায় পুত্রজায়ায় হাসপাতালে নেওয়ার সময়ও পুলিশ কিমের পরিচয় জানতে পারেনি।

পরে পুত্রজায়া হাসপাতালে এক ব্যক্তি নিশ্চিত করেন, নিহত ব্যক্তির নাম কিম; তিনি একজন কোরিয়ান। পরে দক্ষিণ কোরিয়ার গণমাধ্যম দাবি করে, নিহত ওই ব্যক্তির নাম কিম জং ন্যাম। তিনি উত্তর কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট কিম জং উনের সৎ ভাই।

এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ধারণা করা হচ্ছে, ওই দুই নারী উত্তর কোরিয়ার এজেন্ট। ঘটনার পরই ট্যাক্সি নিয়ে উভয়ে পালিয়ে যায়। মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে কিমের মৃত্যুর ব্ষিয়টি বিবিসিকে নিশ্চিত করা হয়। পরে কিমের মরদেহ ময়নাতদন্তর জন্য নেওয়া হয়। ২০১৩ সালে চাচা জ্যাং সং-থায়েকের মৃত্যুদণ্ডের পর মালয়েশিয়ায় আত্মগোপন করেন কিম জং। নিহত কিম জং ন্যামের মা ছিলেন দক্ষিণ কোরিয়ায় জন্ম নেওয়া অভিনেত্রী সাং হায়ে-রিম। উত্তর কোরিয়ার সাবেক নেতা কিম জং ইলের প্রেমিকা ছিলেন সাং-হায়ে রিম। তবে অভিনেত্রী সাং হায়েকে স্ত্রীর মর্যাদা দেননি তিনি।

 


মন্তব্য