kalerkantho


ফলের রস কি শুধু ছেলেরা খাবে, ছোট্ট মেয়ের প্রশ্নে নাজেহাল সংস্থা

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১৬:৩৬



ফলের রস কি শুধু ছেলেরা খাবে, ছোট্ট মেয়ের প্রশ্নে নাজেহাল সংস্থা

‘ছেলেরাই কী শুধু ফলের রস খাবে?’- একরত্তি মেয়ের এই প্রশ্নের কোনও জবাব দিতে পারেননি তার বাবা। দেবেনই বা কী করে! প্যাকেটে যে এক ছাত্রের ছবি। তা দেখিয়েই এ প্রশ্ন তুলেছিল মেয়েটি। জানিয়ে দিয়েছিল, এ জিনিস সে মুখেও তুলবে না। বয়স মোটে ৯ বছর। কিন্তু ছোট্ট মেয়ের এই বড় প্রশ্নই ভাবিয়ে তুলেছে ভারতের নারী ও শিশুকল্যাণ মন্ত্রণালয়কে। এমনকী নাজেহাল খোদ সংস্থাটিও।

মেয়ের প্রশ্নের জবাব দিতে না পেরে ভারতের কেন্দ্রীয় নারী ও শিশুকল্যাণ দপ্তরের মন্ত্রী মানেকা গান্ধীকে চিঠি লেখেন মেয়েটির বাবা। তাতে ফলের রস প্রস্তুতকারক ওই সংস্থার বিরুদ্ধে লিঙ্গবৈষম্যের অভিযোগ আনেন তিনি। কারণ ওই ফলের রসের প্যাকেটে স্কুলব্যাগ কাঁধে একটি ছেলের ছবি থাকে। সঙ্গে লেখা, ‘আপনার সন্তানের জন্য যেটা ভাল, সেটা তাকে (him) খুশি করবে।

’ এই লেখায় যে ‘Him’ শব্দটি রয়েছে, তাতেই আপত্তি ওই শিশুটির বাবা মৃগাঙ্ক কে মজুমদারের। তিনি বলেন, ‘আমি মেয়েকে কোনও উত্তর দিতে পারিনি। ওই সংস্থাটির উচিত আমাদের মেয়েদেরও সম্মান দেওয়া। ’ চিঠিটি পাওয়ার পর ওই সংস্থাকে উপযুক্ত ব্যবস্থাও নিতে বলেন মানেকা গান্ধী।

যদিও ওই সংস্থাটির পক্ষ থেকে লিঙ্গবৈষম্যের সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করা হয়েছে। এক বিবৃতিতে সংস্থার এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, ‘আমরা ওই শব্দটি শুধু ছেলেদের নয়, সমস্ত বাচ্চাদের বোঝাতেই ব্যবহার করেছি। আর ওই ব্যক্তি যে বিষয়টি নিয়ে অভিযোগ করেছেন, তা পুরোপুরি সত্যি নয়। ওই প্যাকেটে ছেলের ছবি থাকলেও পাওয়ার প্রোডাক্ট প্যাকেটে থাকা পরিবারের ছবিতে চারজনের মধ্যে একটি বাচ্চা মেয়ের ছবিও আছে। ’ তবে সংস্থাটি জানিয়েছে, ভবিষ্যতে সবরকম ভুল বোঝাবুঝি দূর করতে ছবিটি পরিবর্তন করবে তাঁরা।

ওই বিবৃতিতে করা সংস্থার দাবিকে আবার মিথ্যা বলে অভিযোগ করেছেন মৃগাঙ্ক। বলেন, ‘এটা সত্যি নয়, ২০০ মিলি-র প্যাকেটে শুধু ছেলের ছবিই আছে। তবে হ্যাঁ, ১ লিটারের প্যাকেটে মেয়ের ছবি রয়েছে। তবে সংস্থাটি ওই ছবি পরিবর্তন করার সিদ্ধান্ত নেওয়ায় আমি খুশি। ’


মন্তব্য