kalerkantho


হিসাব বহির্ভূত সম্পত্তি মামলায় শশীকলার জেল

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ২০:২৯



হিসাব বহির্ভূত সম্পত্তি মামলায় শশীকলার জেল

মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার জন্য দিন গুণছিলেন, অপেক্ষায় ছিলেন শপথ নেওয়ার জন্য। কিন্তু এ যাত্রা আর তামিলনাড়ুর মুখ্যমন্ত্রী হওয়া হচ্ছে না ভিকে শশীকলার।

আগামী ১০ বছরেও এই ইচ্ছে পূর্ণ হবে না তার। কারণ হিসাব বহির্ভূত সম্পত্তি রাখার মামলায় আজ মঙ্গলবার শশীকলাকে দোষী সাব্যস্ত করেছে ভারতের সুপ্রিম কোর্ট। ফলে ৪ বছরের জেল খাটতে হবে এআইএডিএমকে দলের এই নেত্রীকে।

সুপ্রিম কোর্টের এই রায়ের পর চেন্নাই পুলিশের কাছে আত্মসমর্পণ ছাড়া অন্য কোনো পথ খোলা নেই শশীকলার সামনে। এদিকে, ভারতের আইন অনুসারে শশীকলা তার কারাদণ্ডের মেয়াদ শেষ করার পর আরও ৬ বছর মুখ্যমন্ত্রী হতে পারবেন না।

ভারতীয় গণমাধ্যম আনন্দবাজার পত্রিকার খবরে বলা হয়েছে, ১৯৯৬ সালে তামিলনাড়ুর তৎকালীন মুখ্যমন্ত্রী জয়ললিতার (গত বছর ডিসেম্বরে মারা গেছেন) বিরুদ্ধে জনতা দলের নেতা সুব্রহ্মণ্যম স্বামী হিসাব বহির্ভূত সম্পত্তি মামলা দায়ের করেন। তার অভিযোগ ছিল, ১৯৯১ থেকে ১৯৯৬ মুখ্যমন্ত্রী থাকাকালীন জয়ললিতার হিসাব বহির্ভূত সম্পত্তির পরিমাণ ৬৬.৬৫ কোটি টাকা।  

এরপরে ২০১৪ সালের ২৭ সেপ্টেম্বর ওই মামলায় জয়ললিতা, তার পালিত পুত্র সুধাকরণ, ঘনিষ্ঠ বান্ধবী শশীকলা এবং আত্মীয়া ইলাবরসিকে চার বছরের কারাদণ্ডের সাজা শোনান আদালত। অবশ্য কর্নাটক হাইকোর্ট পরে তাদের বেকসুর খালাস করে দেয়।

কিন্তু সেই রায়ের বিরুদ্ধে শীর্ষ আদালতে যান সুব্রহ্মণ্যম স্বামী। শেষ পর্যন্ত আজ মঙ্গলবার বেঙ্গালুরু কোর্টের রায় বজায় রাখল সুপ্রিম কোর্ট।

এদিকে গত ডিসেম্বরে মারা যাওয়ায় মামলার রায়ে তামিলনাড়ুর চারবারের মুখ্যমন্ত্রী জয়ললিতার ভূমিকার ব্যাপার কিছু বলা হয়নি। তবে জয়ললিতার সহযোগী হিসেবে শশীকে দণ্ড দেন আদালত।


মন্তব্য