kalerkantho


৭ বছরের শিশুকে যৌন নির্যাতন করে খুন

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ২৩:১২



৭ বছরের শিশুকে যৌন নির্যাতন করে খুন

সাত বছরের এক শিশুকে যৌন নির্যাতন করে তাকে খুন করার অভিযোগ উঠেছে তারই প্রতিবেশীর বিরুদ্ধে। অভিযুক্তকে পুলিশ ইতিমধ্যেই গ্রেপ্তার করেছে।

পুলিশ সূত্রের খবর, যৌন অত্যাচারের সময় ওই শিশুটি যাতে চিৎকার না করে তাই তার মুখের মধ্যে কাপড় গুঁজে রাখা হয়েছিল। নিঃশ্বাস নিতে না পেরেই শিশুটির মৃত্যু হয়েছে। তার মৃত্যুর পরে অভিযুক্ত তার দেহটি পুড়িয়ে দেয় এবং পোড়া দেহটি একটি ট্র‌্যাভেল ব্যাগের মধ্যে ভরে চেন্নাইয়ের হাইওয়েতে ফেলে দেয়।

পুলিশ সূত্রের খবর, ৩২ বছরের ধসয়ান্ত একটি সফটওয়্যার সংস্থায় কাজ করত। চেন্নাইয়ের মুগালিভাক্কম-এর একটি আবাসনে ধসায়ান্ত থাকে। ওই আবাসনেরই বাসিন্দা ছিল ৭ বছরের শিশুটি। রবিবার বিকেলে আবাসনের মধ্যেই শিশুটি খেলা করছিল। সেই সময় তার মা-বাবা বাড়িতে ছিলেন না। ধসায়ান্ত তাকে কুকুরের বাচ্চা দেওয়ার লোভ দেখিয়ে বাড়িতে নিয়ে যায়।

সেখানেই ওই শিশুটিকে যৌন নির্যাতন করে। অন্যদিকে, শিশুটির অভিভাবক বাড়ি ফিরে তাকে কোথাও খুঁজে না পেয়ে পুলিশের দ্বারস্থ হন।

পুলিশ শিশুটির ব্যাপারে প্রতিবেশীদের কাছে খোঁজ-খবর নেয়ার সময়ই ধসায়ান্তের ওপর তাঁদের সন্দেহ হয়। শিশুটির বাড়ির ওপর তলাতেই সে থাকে। তাকে আটক করে থানায় নিয়ে আসা হয়। পুলিশের জেরার চাপে ধসায়ান্ত নিজের দোষ স্বীকার করে। ধসায়ান্তের মোবাইল থেকে শিশুদের পর্ণোগ্রাফির প্রচুর ভিডিও পাওয়া গেছে।

ইতিমধ্যেই এই ঘটনাকে ঘিরে প্রতিবাদ শুরু হয়ে গেছে। অপরাধীর কঠোর শাস্তির দাবিতে প্ল্যাকার্ড হাতে চেন্নাইয়ের রাস্তায় নেমে পড়েছে সাধারণ মানুষ। ‌

সূত্র: ‌আজকাল


মন্তব্য