kalerkantho


হলদিঘাটের যুদ্ধে রাণা প্রতাপ হারেননি, হেরেছিলেন আকবর!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১৮:৫৩



হলদিঘাটের যুদ্ধে রাণা প্রতাপ হারেননি, হেরেছিলেন আকবর!

ইতিহাসের বিখ্যাত হলদিঘাটের যুদ্ধে নাকি সম্রাট আকবর নন, জিতেছিলেন মহারাণা প্রতাপই! ভারতের রাজস্থান ইউনিভার্সিটির সিলেবাসে এবার এই পরিবর্তন আনতে যাচ্ছে রাজস্থান সরকার। এর ফলে ভারতের মধ্যযুগের ইতিহাসে বিকৃতি ঘটবে বলে সরব হয়েছেন ইতিহাসবিদরা।

১৫৭৬ সালে সেনাপতি মান সিং-এর নেতৃত্বে চিতোরের মহারাণা প্রতাপের সঙ্গে যুদ্ধ হয় সম্রাট আকবরের বাহিনীর। এই যুদ্ধে পরাজিত হয়ে চিতোর ছেড়ে দক্ষিণের মেওয়ার পাহাড়ে আশ্রয় নেন মহারাণা প্রতাপ। তাঁর বীরত্ব, সাহসিকতা, আত্মত্যাগ ও দেশপ্রেমের নানা উপমা রাজস্থানের লোককথা ও ইতিহাসের পাতায় বর্ণিত আছে। কিন্তু হলদিঘাটের যুদ্ধে যে তাঁর পরাজয় হয়েছিল, সে বিষয়ে ইতিহাসবিদরা নিশ্চিত। কিন্তু সে ইতিহাস এবার বদলে দিচ্ছে রাজস্থান সরকার।

রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী বসুন্ধরা রাজে সিন্ধিয়ার মন্ত্রিসভার তিন গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রী এই প্রস্তাবকে সমর্থন করেছেন। মহারাণা প্রতাপ নন, পরাজয় ঘটেছিল আকবরেরই - এই বক্তব্যে নতুন ইতিহাস বই লেখা হবে। গত সপ্তাহেই রাজস্থান বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট সদস্য এবং বিজেপি বিধায়ক মোহন লাল গুপ্তা এই ইতিহাসকে নতুন করে লেখার প্রস্তাব দেন। তাঁর কথা সমর্থমন করেছেন রাজস্থানের স্বাস্থ্যমন্ত্রী কালীচরণ সরাফ, স্কুলশিক্ষামন্ত্রী বাসুদেব দেবনানি এবং নগরোন্নয়ন মন্ত্রী রাজপাল সিং।

উইনিভার্সিটির বোর্ড অফ স্টাডিজের কাছে এখন বিষয়টি পর্যালোচনার জন্য পাঠানো হয়েছে।

ভারতের মধ্যযুগের ইতিহাসের যে কোনও প্রামাণ্য বই, যেমন সতীশ চন্দ্রের 'মিডিয়েভাল ইন্ডিয়া'য় হলদিঘাটের যুদ্ধে আকবরের বিজয়ের কথাই লেখা আছে। কিন্তু সেই ইতিহাস মানতে রাজি নয় রাজস্থান সরকার। আকবরকে বিদেশি হামলাকারী তকমা দিয়ে মহারাণা প্রতাপই এই যুদ্ধে জয় পেয়েছিলেন বলে দাবি তাঁদের। এর ফলে শুধু ইতিহাসের বিকৃতি ঘটবে না, ইতিহাসকে অপমানও করা হবে বলে জানিয়েছেন ঐতিহাসিক তনুজা কোঠিয়াল। সূত্র-এইসময়


মন্তব্য