kalerkantho


হাইকোর্টের আদেশ

পাকিস্তানে নিষিদ্ধ হলো ভ্যালেন্টাইন্স ডে উদযাপন

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১৮:১১



পাকিস্তানে নিষিদ্ধ হলো ভ্যালেন্টাইন্স ডে উদযাপন

ফাইল ফটো

পাকিস্তানে প্রকাশ্যে ভ্যালেন্টাইন্স ডে’র উদযাপন নিষিদ্ধ করেছে ইসলামাবাদ হাইকোর্ট। একই সঙ্গে দেশের সব সরকারি অফিসকেও এই নির্দেশ মেনে চলতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

ভ্যালেন্টাইন্স ডে’র একদিন আগে আজ (সোমবার) বিচারপতি শওকাত আজিজ এ নির্দেশ দেন। শুনানিতে তিনি ফেডারেল মিনিস্ট্রি অব ইনফরমেশন, পাকিস্তান ইলেক্ট্রনিক মিডিয়া রেগুলেটরি অথরিটি (পেমরা) এবং ইসলামাবাদ হাইকমিশনকে আদালতের আদেশ দ্রুত কার্যকর করা হয়েছে কি না- তার প্রতিবেদন দিতে বলেছেন।

একই সঙ্গে দেশের সব প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়াকেও কঠোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে ভ্যালেন্টাইন ডে সংক্রান্ত সব ধরনের প্রচারণা, সংবাদ ও ফিচার প্রকাশ বন্ধ করতে।

আব্দুল ওয়াহিদ নামে এক নাগরিকের দাখিল করা পিটিশনের শুনানি শেষে হাইকোর্ট এই আদেশ দিলেন।   তিনি আবেদনে আদালতকে বলেন, মূলধারার মিডিয়া ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভ্যালেন্টাইন্স ডে সংক্রান্ত প্রচারণা ইসলামী জীবনবিধান বিরোধী এবং এসব দ্রুত নিষিদ্ধ করা উচিৎ।

পটভূমি: ভ্যালেন্টাইন্স ডে নিয়ে পাকিস্তানিদের মাঝে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা যায়। অনেকেই এই দিনটি উদযাপন করলেও অনেকেই আবার এর বিরোধীতাও করেন।

দেশটির প্রধান শহরগুলোর বিভিন্ন রেস্টুরেন্ট, ডেলিভারি সার্ভিস ও বেকারি ভ্যালেন্টাইন্স উপলক্ষে বিভিন্ন ছাড় দিয়ে প্রচারণা চালায়। গত বছর দেশটির প্রেসিডেন্ট মামনুন হুসাইন ভ্যালেন্টাইন্স ডে উদযাপন তবন্ধ জনগণকে আহ্বান জানান।

তিনি বলেন, এটি মুসলিম সংস্কৃতির অংশ নয়। এটি পশ্চিমা সংস্কৃতি।

এর আগে ২০১৩ সালে পেশাওয়ারে ভ্যালেন্টাইন’স ডের কার্ড পুড়িয়ে কালো পোশাক পরে নারীরা বিক্ষোভ করে। অপরদিকে, পাকিস্তানের মানবাধিকারকর্মী শাবিন মাহমুদ বন্দরনগরী করাচিতে রক্ষণশীলদের ভ্যালেন্টাইন’স ডে বিরোধী প্রচারণার বিরোধীতায় এক বিক্ষোভের আয়োজন করেন। বিক্ষোভে তিনি দাবি করেন, ‘করাচি ভালোবাসাকে হ্যাঁ বলেছে’। তবে ওই সময় পুরো শহরের বিলবোর্ডগুলোতে লেখা ছিল‘ভ্যালেন্টাইন্স ডে কে না বলুন’।

ওই ঘটনার পর থেকে নিয়মিত হত্যার পেতে থাকেন শাবিন। পরে সেই করাচিতেই একটি সেমিনারে বক্তব্য দেওয়ার পর তাকে হত্যা করে অজ্ঞাত খুনিরা।  


মন্তব্য