kalerkantho


নতুন ‘মুসলিম নিষেধাজ্ঞা’ জারির পরিকল্পনা ট্রাম্পের

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১০:০০



নতুন ‘মুসলিম নিষেধাজ্ঞা’ জারির পরিকল্পনা ট্রাম্পের

সাত মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশের উপর মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের জারি করা ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা আদালতে স্থগিতের পর এবার নতুন আরেকটি নিষেধাজ্ঞা আরোপের পরিকল্পনা করছেন তিনি। মার্কিন প্রেসিডেন্টের বিমান এয়ারফোর্স ওয়ানে চড়ে ফ্লোরিডা যাওয়ার পথে তিনি সাংবাদিকদের এসব কথা জানান।


উল্লেখ্য, ২৭ জানুয়ারি ট্রাম্প এক নির্বাহী আদেশে পরবর্তী চারমাসের জন্য সব ধরনের শরণার্থী কার্যক্রম বন্ধ করেন। এতে পরবর্তী তিন মাসের জন্য সাতটি মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশের (ইরান, ইরাক, লিবিয়া, সোমালিয়া, সুদান, সিরিয়া ও ইয়েমেন) নাগরিকদের যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়। পরে সিয়াটলের এক বিচারক ট্রাম্পের ওই নিষেধাজ্ঞা স্থগিতের আদেশ দেন। ট্রাম্প প্রশাসন ওই আদেশের বিরুদ্ধে আপিল করলেও বৃহস্পতিবার সান-ফ্রান্সিসকোভিত্তিক তিন বিচারকের প্যানেল তা খারিজ করেন।
আপিল আদালতের পর এবার সুপ্রিম কোর্টে যাওয়ার কথা ভাবছে মার্কিন বিচার বিভাগ। তবে সুপ্রিম কোর্টে না গিয়েও ট্রাম্প নতুন করে নিষেধাজ্ঞা আরোপের কথা জানিয়েছেন।
শুক্রবার ফ্লোরিডাতে যাওয়ার পথে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে সাত মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশের উপর ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞার বিষয়টিকে ইঙ্গিত করে ট্রাম্প বলেন, ‘আমরা সন্দেহাতীতভাবে এ লড়াইয়ে জিতবো। কিন্তু দুর্ভাগ্যজনক ব্যাপার হলো, এতে কিছু বেশি সময় লাগছে। তবে একেবারে নতুন করে আরেকটা আদেশ জারি করাসহ আরও অনেক পথই আমাদের সামনে খোলা আছে।
নতুন নিষেধাজ্ঞা কেমন হবে, তা পরিষ্কারভাবে না বললেও ট্রাম্প জানিয়েছেন, আগের নিষেধাজ্ঞা ‘খুব সামান্যই পরিবর্তিত হবে’।
তবে ওই নিষেধাজ্ঞায় স্থগিতাদেশের বিরুদ্ধে ট্রাম্প প্রশাসন সুপ্রিম কোর্টে যাবে বলে হোয়াইট হাউসের চিফ অব স্টাফ রেইন্স প্রিয়েবাস শুক্রবার সাংবাদিকদের জানিয়েছেন।
তিনি বলেন, ‘স্থগিতাদেশের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে যাওয়াসহ আইনি প্রক্রিয়ার সকল সম্ভাবনাই খোলা রয়েছে। ’
স্থগিতাদেশের সপক্ষে যুক্তি দিয়ে প্রিয়েবাস আরও বলেন, ‘মার্কিন জনগণকে জঙ্গিবাদ থেকে রক্ষার জন্য দ্রুত পদক্ষেপ নিতেই নির্বাহী আদেশ জারি করা হয়েছে। ’
সূত্র: রয়টার্স, বিবিসি


মন্তব্য