kalerkantho


মালদ্বীপের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে লড়বেন নাশিদ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:৪৭



মালদ্বীপের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে লড়বেন নাশিদ

মালদ্বীপের নির্বাসিত নেতা মোহাম্মদ নাশিদ বৃহস্পতিবার ঘোষণা করেছেন, তিনি ২০১৮ সালে অনুষ্ঠেয় প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন।

চলতি সপ্তাহে কলম্বোতে তার মালদিভিয়ান ডেমোক্রেটিক পার্টি (এমডিপি)’র সঙ্গে বৈঠকের পর তিনি বলেন, তিনি ২০১৮ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রেসিডেন্ট আবদুল্লাহ ইয়ামিনকে চ্যালেঞ্জ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

শ্রীলংকার রাজধানী কলম্বোতে নির্বাসনে থাকা দলীয় নেতাদের সঙ্গে বৈঠকের পর নাশিদ কলম্বোতে সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি যে, নির্বাচনে এমডিপি প্রার্থী দেবে। আমি সেই প্রার্থী হবো বলে আশাবাদী। ’

নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে হলে মোহাম্মদ নাশিদকে অবশ্যই দেশে ফিরতে হবে। আর দেশে ফিরলেই তিনি গ্রেফতার হবেন এটা অনেকটা নিশ্চিত। কারণ, দেশে সন্ত্রাস সংশ্লিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে এক বিতর্কিত রায়ে তার সাজা হয়েছে।

মালদ্বীপের সংবিধান অনুযায়ী ২০১৫ সালে এক ফৌজদারি মামলায় সাজাপ্রাপ্ত হওয়ায় নাশিদ প্রেসিডেন্ট প্রার্থী হতে পারবেন না। তবে নাশিদ আশা করেন, আন্তর্জাতিক চাপে সাড়া দিয়ে সেই বিধিনিষেধ তুলে দেয়া হবে।

জাতিসংঘের একটি প্যানেল সন্ত্রাসবাদের অভিযোগে নাশিদকে দোষী সাব্যস্তকরণ এবং ১৩ বছরের সাজাদান অবৈধ বলে রায় দিয়েছে এবং ইয়ামিন সরকারকে নাশিদকে ক্ষতিপূরণ দেয়ার নির্দেশ দিয়েছে।

নাশিদ ২০১৬ সালের জানুয়ারিতে চিকিৎসার জন্য যুক্তরাজ্য গমন করেন এবং রাজনৈতিক আশ্রয় লাভের পর সেখানেই গত এক বছর যাবত অবস্থান করছেন।

মোহাম্মদ নাশিদ ২০০৮ সালে দেশটির তিন দশকের প্রেসিডেন্ট মামুন আবদুল গাইয়ুমকে হারিয়ে মালদ্বীপের প্রথম গণতান্ত্রিকভাবে নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট হন। গাইয়ুম দেশটির বর্তমান প্রেসিডেন্ট ইয়ামিনের সৎভাই।

২০১৩ সালের নভেম্বরে বিতর্কিত দ্বিতীয় দফা প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ইয়ামিন সামান্য ব্যবধানে নাশিদকে হারান।


মন্তব্য